×
অফবিটভাইরালভিডিও

মনে করি আসাম যাব, সবুজ প্রকৃতির মাঝে অসাধারণ লোকনৃত্য সুন্দরী যুবতীর, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

বর্তমান সময়ে আধুনিকতার যুগে দাঁড়িয়ে সবকিছুই এখন মানুষের হাতের মুঠোয় চলে এসেছে। বেশ কিছু বছর আগেও বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে সিনেমা ও টেলিভিশনের ওপরেই মূলত নির্ভর করে থাকতে হতো। এছাড়াও নাচ, গান, আবৃত্তি প্রভৃতি দেখার জন্য কোনো অনুষ্ঠানে দর্শক হিসেবে উপস্থিত হতে হতো।

কিন্তু এখন সময় পাল্টেছে, সব কিছু মানুষের মুঠোফোন অর্থাৎ মোবাইলে বন্দী হয়ে গিয়েছে। বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে সিনেমা থেকে শুরু করে অন্যান্য সমস্তকিছুই দেখতে পাওয়া যায়। সাধারণ মানুষদের একাংশ যেমন বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াকে বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে ব্যবহার করেন, তেমনই আরেক অংশ সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মকে নিজেদের প্রতিভা বিকাশের ক্ষেত্র হিসেবে ব্যবহার করে থাকেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় যে কেউ চাইলেই নিজেদের নাচ-গান-আবৃত্তি প্রভৃতি প্রতিভা তুলে ধরতে পারবেন। এমন অনেক মানুষই আছেন যাঁরা সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের প্রতিভা পেশ করে রাতারাতি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন। তাঁদের যে কোনো ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করা মাত্র‌ই ঝড়ের বেগে তা পুরো নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়।

প্রতিভা প্রকাশের জন্য ইউটিউব এক অত্যন্ত সহায়ক সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম। ইউটিউবে যাঁর চ্যানেলে যত সাবস্ক্রাইবার বেশি, যাঁর ভিডিওতে যত লাইক-কমেন্ট বেশি, সেই ব্যক্তি তত বেশি জনপ্রিয় হিসেবে বিবেচিত হন। ইউটিউবের এইরকমই এক জনপ্রিয় চ্যানেল ‘ডান্স উইথ মৌ’ (Dance With Mou)। এক সুন্দরী যুবতী নিজের নামে এই চ্যানেলে নিজের নাচের ভিডিও পোস্ট করে থাকেন। তাঁর প্রত্যেকটি নাচের ভিডিওই হামেশাই ভাইরাল হয়ে থাকে। নেটিজেনরা এই মেয়ের নাচ বেশ উপভোগ করেন।

সম্প্রতি এই চ্যানেলের বাংলা গানের সাথে নাচের এক ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। ভিডিওটিতে মেয়েটিকে জনপ্রিয় লোকগীতি ‘মনে করি আসাম যাবো’-র সাথে নাচ করতে দেখা গিয়েছে। ভিডিওতে মেয়েটি নীল রঙের শাড়ি একটু উঁচু করে পরে তার সাথে ম্যাচিং ব্লাউজ ও মানানসই গয়নায় সেজেছিল, খোঁপায় গুঁজেছিল লাল ফুল। কোনো এক বাড়ির ছাদে মেয়েটি এই নাচের ভিডিও রেকর্ড করেছেন। তাঁর নাচ দেখে এই বিষয়টি সহজেই বোঝা যায় যে তিনি প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত। হাসিমুখে দক্ষ স্টেপ দিয়ে করা তাঁর নাচ দেখে নেটিজেনরা ভিডিওটির কমেন্ট বক্স প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন। ভিডিওটির ভিউজ সংখ্যা ৫.৫ মিলিয়নে পৌঁছে গিয়েছে, ২৩ হাজারের বেশি মানুষ এই ভিডিওটি লাইক করেছেন।

Advertisement