অফবিটভাইরাল

অনেক বছর পর ভারতের মন্দিরে দেখা মিলল বিরল সাদা রঙের কেউটের, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

ইন্টারনেটে বহু অদ্ভুত অদ্ভুত ঘটনা ভাইরাল হয়। কেউ যদি নিজের কোনো ভালোলাগার মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দী করে স্যোশাল মিডিয়ায় পোস্ট করে তবেই সেটা ভাইরাল হয়ে যায়। একজন মানুষের ভালোলাগা ছড়িয়ে পড়ে হাজার হাজার মানুষের মাঝে। অবশ্য অনেকে নানারকম সাহায্য চাইতেও স্যোশাল মিডিয়াতে আসে। স্যোশাল মিডিয়া হয়ে উঠেছে বিশ্বের দরবারে নিজেকে প্রকাশ করার একটা মাধ্যম। তবে শুধু মানুষই নয় এখানে বিভিন্ন পশু পাখিদেরও বেশ মজার মজার ভিডিও দেখতে পাওয়া যায়।

 

প্রত্যেকটা মানুষ সাপকে ভয় পায়। সাপ দুই ধরনের হয় বিষধর এবং বিষহীন। তবে সাপেরা মূলত নিজের আত্মরক্ষার জন্য মানুষকে আক্রমণ করে। যদিও অনেক সাপ‌ ব্যাঙ, পোকামাকড় খেয়ে নিজের জীবন ধারণ করলেও অনেক সাপ বড় বড় প্রাণীদের খেয়ে বেঁচে থাকে। আগে মানুষ সাপ তাড়ানোর জন্য নানা কুসংস্কারের আশ্রয় নিলেও এখন তারা বনদপ্তরকে খবর দেয়। অবশ্য এখনও বহু মানুষ নিজেদের আত্মরক্ষার জন্য সাপকে মেড়ে ফেলে।

 

তবে অনেক সময় ইন্টারনেটের মাধ্যমে আমরা বেশ অদ্ভুত ঘটনার সাক্ষী থাকি। যা চোখে না দেখলে হয়তো আমরা বিশ্বাস করতাম না। সম্প্রতি নেটদুনিয়ায় এমন একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যা দেখে চমকে উঠেছেন নেটিজেনরা। ভারতে সাপকে নিয়ে নানারকম কুসংস্কার আছে। ভারতীয়রা সাপকে মনসার আরেক রূপ ভাবেন। সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে এমনি এক ভিডিও।

 

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে দক্ষিণ ভারতের কোনো এক প্রত্যন্ত গ্রামের মন্দিরে দেখা পাওয়া গেছে। একটি সাদা রঙের কেউটে সাপ।

 

 

যা দেখে অবাক হয়েছেন সবাই। সাপটি আবার মাঝেমাঝেই গ্রামবাসীদের দিকে বনাম তুলছে। কোনো এক গ্রামবাসী পুরো ঘটনাটা ভিডিও করে স্যোশাল সাইটে পোস্ট করেন। এরকম বিরল ঘটনা দেখার সাথে সাথেই মানুষ শেয়ার করেছে নিজের প্রোফাইলে। মুহুর্তের মধ্যেই ভাইরাল হয়ে যায় এই ভিডিও। ‌

 

Back to top button