অফবিটঅর্থনীতি

বাড়িতে পুরোনো দশ টাকার নোট আছে? থাকলে পেতে পারেন নগদ ২৫,০০০ টাকা, রইলো বিস্তারিত

বহু মানুষ পুরোনো জিনিস সংগ্রহ করে তা সংরক্ষন করতে ভালোবাসেন। পুরোনো মূর্তি বা আঁকা ছবি সবকিছুই বেশ চড়া দামে বিক্রি হয় অনলাইনে। ‘old is gold’ মন্ত্রে বিশ্বাসী মানুষেরাই বেশীরভাগ সময় এই অ্যান্টিক জিনিসপত্র সংগ্রহ করে থাকেন। অনেক সময় এগুলো তারা ঘর সাজানোর জন্য ব্যবহার করে থাকেন আবার অনেকেই এগুলো রীতিমতো এক্সিবিশনের মাধ্যমে সবার সামনে তুলে ধরেন।

 

বিভিন্ন অনলাইন ওয়েবসাইটে যেকোনো পুরোনো জিনিস কিনতে পাওয়া যায়। অনেক সময় এই সব পূরোনো জিনিসের দাম লক্ষাধিক ছাড়ায়। আসলে দামটা অনেক সময় জিনিসটার বয়স এবং তার সাথে জড়িয়ে থাকা নানা ঘটনার উপর নির্ভর করে। যেকারনে ডাকটিকিট বর্তমানে বন্ধ হয়ে গেলেও তারা সেগুলো সংগ্রহ করতে ভালোবাসেন তারা সেগুলোকে হাজার হাজার টাকার বিনিময়ে সংগ্রহে করেন। যারা পুরোনো টাকা বা কয়েন জমান তাদের জন্য ইন্ডিয়া মার্ট এবং ওএলএক্স এনে দিয়েছে এক সুবর্ণ সুযোগ। এখানেই স্বাধীনতার আগের একটি নোটের দাম লক্ষাধিক ছাড়িয়েছে।

 

ভারত সরকার অনেক দিন আগেই পুরোনো নোট ছাপানো বন্ধ করে দিয়েছেন। যদি কারোর কাছে ব্রিটিশ আমলের পুরোনো কয়েন বা দশ টাকার নোট থাকে তবে তা বিক্রি করে একজন মানুষ অনেক টাকার মালিক হতে পারেন। বেশ চড়া দামে পুরোনো টাকা এবং কয়েন বিক্রি হয় অনলাইনে। এখন অবশ্য রিজার্ভ ব্যাংক নতুন দশ টাকার কয়েন বের করেছে। তাই এখন আর পুরোনো দশটাকার নোট সেভাবে বাজারে পাওয়া যায় না।

 

 

এই সুযোগটাকে হাত ছাড়া করতে চান না পুরোনো জিনিসের সংগ্রাহকেরা। তাই অনলাইনে বেশ চড়া দামেই বিক্রি হচ্ছে দশটাকার নোট। আর সেই নোট যদি স্বাধীনতার আগের হয় তবে তার দাম কুড়ি থেকে। পঁচিশ হাজার টাকা পর্যন্ত হতে পারে। তাই আপনার কাছে যদি পুরোনো দশটাকার নোট থাকে তবে আপনি হতে পারেন হাজার হাজার টাকার মালিক।

 

Back to top button