নিউজ

প্রবল বেগে ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘তাউকটে’, কড়া সতর্কতা আবহাওয়া দপ্তরের

দেশ জুড়ে করোনার ভয়ানক পরিস্থিতির মধ্যেই এবার আছড়ে পড়তে চলেছে ঘূর্ণিঝড়। দিল্লির মৌসম ভবনের তরফে জানা যাচ্ছে, আগামী ১৬ই মে তামিলনাড়ু, কেরল, কর্ণাটক, গোয়া এবং মহারাষ্ট্রে আছড়ে পড়তে চলেছে একটি ঘূর্ণিঝড়। এর পাশাপাশি লাক্ষাদ্বীপ সহ দক্ষিণের রাজ্যগুলিতে আগামী কয়েকদিন মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনার কথা জানাচ্ছে মৌসম ভবন।

মৌসম ভবন জানাচ্ছে, চলতি মরসুমে এই প্রথম কোনো ঘূর্ণিঝড় তৈরি হচ্ছে। এই ঘূর্ণিঝড়টির নাম রাখা হয়েছে ‘তাউকতাই’। নামটি দিয়েছে মায়ানমার। জানা যাচ্ছে, আগামী ১৬ ই মে এটি ঘূর্ণিঝড় হয়ে মূল ভূখণ্ডে প্রবেশ করবে। মৌসম ভবন জানিয়েছে, আগামী ১৪ই মে নাগাদ দক্ষিণ-পূর্ব আরব সাগরে ঘূর্ণিঝড়টি তৈরি হবে। এরপর এটি শক্তি বাড়িয়ে ১৬ই মে ভূখণ্ডে প্রবেশ করবে।

মৌসম ভবনের তরফে ইতিমধ্যেই সংশ্লিষ্ট রাজ্যগুলিকে এই বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছে। স্থানীয় প্রশাসনের তরফে কড়া সতর্কতা জারি করা হয়েছে এই সমস্ত রাজ্যের উপকূলীয় এলাকা গুলিতে। মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধ করা হয়েছে। যারা ইতিমধ্যেই সমুদ্রে চলে গিয়েছেন তাদের অবিলম্বে ফিরে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তবে এই ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাব বাংলায় খুব বেশি পড়বে না বলে জানিয়েছে মৌসম ভবন। বাংলায় গত কয়েকদিন ধরেই নিম্নচাপের জন্য বৃষ্টি হলেও, ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাব পড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই।

Back to top button