দেশনিউজ

গর্ভে চার মাসের সন্তান, সারাদিন রোজা রেখেও কোভিড রোগীদের সেবা করে যাচ্ছেন এই নার্স

করোনা পরিস্থিতি দিনের পর দিন ভয়াবহ হয়ে উঠছে। কখনও অক্সিজেনের অভাব কখনও আবার কখনও হাসপাতালের বেডের। এই মৃত্যু মিছিলে বহু মানুষ নিজের প্রিয়জনকে হারিয়েছেন। তবে এই সময় তারা নির্ভয়ে লড়াই করে চলেছেন তারা হলেন ডাক্তার এবং স্বাস্থ্যকর্মীরা। দিনরাত তারা আমাদের পরিসেবা দিয়েই চলেছেন। যাতে সাধারণ মানুষ সুস্থ থাকেন। নিজেদের পরিবারের কথা না ভেবে তারা নিঃস্বার্থভাবে মানুষের সেবা করে চলেছেন।

 

এরকমই এক সাহসী নার্স হলেন সুরাটর কোভিড কেয়ার ইউনিটের ন্যান্সি। যিনি নিজের স্বাস্থ্যের কথা না ভেবে করোনা রোগীদের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করেছেন। তিনি চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা তার সাথে রেখেছেন পবিত্র রমজান মাসের রোজা। তাই তার শরীর ভীষণ দুর্বল হয়ে পড়েছে। তিনি জানেন যে দুর্বল শরীরে সংক্রমণের ভয় বেশী তারপরেও তিনি মানুষের সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করেছেন।

 

নিজের কথা না ভেবে করোনা আক্রান্ত রোগীদের সেবা করে চলেছেন ন্যান্সি আয়েজা মিস্ত্রী। সুরতের অটল কোভিড কেয়ার ইউনিটের নার্স হলেন তিনি। এই মুহূর্তে পবিত্র রোজা পালন করছেন তিনি। তার মাসের অন্তঃসত্ত্বা অবস্থাতেও তিনি ৭-৮ ঘন্টা ডিউটি করে চলেছেন। সারাদিন প্রায় কিছুই না খেয়ে ডিউটি করে চলেছেন তিনি।

 

তিনি করোনার প্রথম ঢেউয়ের সময় থেকেই কোভিড কেন্দ্রে কাজ করে চলেছেন। এই সময় গর্ভে থাকা সন্তানের জন্য বেশ কড়া ভাবেই কোভিড বিধি পালন করে চলেছেন তিনি। ন্যান্সির কথা অনুযায়ী তার গর্ভে সন্তান থাকলেও তার কাছে নিজের দায়িত্ব সমান গুরুত্বপূর্ণ। ঈশ্বরের কৃপায় তিনি যে পবিত্র রমজান মাসে নিজেকে মানুষের সেবায় নিয়োজিত করতে পেরেছেন এটা তার কাছে অনেক বড় পাওনা। ন্যান্সির মতন আরও বহু স্বাস্থ্যকর্মীরা নিজেদের সুরক্ষার কথা না ভেবে আমাদের সেবায় এগিয়ে এসেছেন।

 

Back to top button