নিউজ

ভ্যাপসা গরম থেকে মুক্তি, রাজ্যের একাধিক জেলায় ঝেঁপে নামবে বৃষ্টি, জানাল আবহাওয়া অফিস

এখনই পিছু ছাড়ার ইচ্ছা নেই বৃষ্টির। প্রবল বৃষ্টির আশঙ্কা কিছুটা কম হলেও আপাতত দফায় দফায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস রয়েই গিয়েছে। মেঘলা আকাশ বাড়াচ্ছে গুমোট ভাব এবং আদ্রতাজনিত অস্বস্তিভাব। এখনি এই পরিস্থিতি থেকে রেহাই নেই রাজ্যবাসীর এমনই জানানো হয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর থেকে।

ভ্যাপসা গরম থেকে মুক্তি, রাজ্যের একাধিক জেলায় ঝেঁপে নামবে বৃষ্টি, জানাল আবহাওয়া অফিস

আজ সকাল থেকেই কলকাতার আকাশ আংশিক মেঘলা। সঙ্গে চলছে দফায় দফায় বৃষ্টিপাত। তবে আদ্রতা জনিত একটা অস্বস্তি থাকবে কলকাতা এবং কলকাতার শহরতলীতে। এমনকি তাপমাত্রার পারদ বাড়তে পারে তার সাথে সাথেই। বৃহস্পতিবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩৫ ডিগ্রী সেলসিয়াস এর আশেপাশে যা স্বাভাবিকের তুলনায় তিন ডিগ্রি বেশি। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৭.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে প্রায় ১ ডিগ্রি বেশি। বাতাসের আপেক্ষিক আদ্রতার পরিমাণ থাকবে ৯৩ শতাংশ এবং গত ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টিপাত হয়েছে ১৫.২ মিলিমিটার।

ভ্যাপসা গরম থেকে মুক্তি, রাজ্যের একাধিক জেলায় ঝেঁপে নামবে বৃষ্টি, জানাল আবহাওয়া অফিস

গত সপ্তাহ থেকে কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টিপাত শুরু হলেও ইতিমধ্যেই বৃষ্টিপাতের প্রভাব কিছুটা কমেছে। বঙ্গোপসাগর থেকে প্রচুর পরিমাণে জলীয়বাষ্প প্রবেশ করায় বাতাসের আপেক্ষিক আদ্রতা বেড়েছে। এর জেরেই দিনের বেলা থাকছে গুমোট এবং ভ্যাপসা গরম। এই পরিস্থিতি ও আগামী বেশকিছুদিন বজায় থাকবে এমনই জানানো হয়েছে।

আগামী তিনদিন রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় আংশিক মেঘলা থাকবে আকাশ। হতে পারে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত হয়। তবে আগামী কয়েকদিন থাকছে না ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস। বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ বেশি থাকায় রোদ উঠলে আদ্রতা জনিত অসস্তি বাড়বে। শুক্রবার উত্তরবঙ্গের হতে পারে দু-এক পশলা ভারী বৃষ্টি। দক্ষিণবঙ্গে আগামী কয়েকদিন ভারী বৃষ্টিপাতের কোন পূর্বাভাস থাকছে না। তাই দক্ষিণের জেলাগুলিতে বাড়বে তাপমাত্রা।

ভ্যাপসা গরম থেকে মুক্তি, রাজ্যের একাধিক জেলায় ঝেঁপে নামবে বৃষ্টি, জানাল আবহাওয়া অফিস

এই মুহূর্তে অবস্থান করছে একটি ঘূর্ণবাত। যেটির অবস্থান মহারাষ্ট্রে। মৌসুমী অক্ষ রেখা অনেকটাই সরে গিয়েছে এই রাজ্যের উপর থেকে। এই অক্ষরেখা ওড়িশা এবং অন্ধপ্রদেশ সীমানা বরাবর বিস্তৃত রয়েছে বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত। রাজ্যের দক্ষিণ পূর্ব দিক থেকে বাতাস এর ওপর ভর করে প্রচুর পরিমাণ জলীয়বাষ্প ঢুকছে, এই। এই জলীয় বাষ্পের জেরেই তৈরি হচ্ছে স্থানীয় বজ্রগর্ভ মেঘ এর। যা হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত ঘটাবে সাহায্য করবে। এমনই জানানো হচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর এর তরফ থেকে।

Related Articles

Back to top button