নিউজ

বাংলার দিকে দ্রুত বেগে ঘনিয়ে আসছে দূর্যোগ, কড়া সতর্কতা জারি করল আবহাওয়া অফিস

রবিবার বিকালে বদলে গিয়েছে কলকাতা এবং তার পার্শ্ববর্তী অঞ্চলের আবহাওয়া। কালো মেঘে ঢেকে গিয়েছে আকাশ। ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে বৃষ্টিতে ভিজেছে সোমবারেও। আজ সোমবার ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার বেগে বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া সঙ্গে রয়েছে ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস ও। বঙ্গোপসাগরের উপরে তৈরি নিম্নচাপের জেরে দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন এলাকায় এই বৃষ্টি হচ্ছে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর।

রবিবার থেকে শুরু হয়েছে বৃষ্টি। আজ সোমবার বৃষ্টির পরিমাণ আরও বেড়েছে। সপ্তাহের শুরুতে বৃষ্টির পরিমাণ বেড়েছে কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, উত্তর ২৪ পরগনা এবং দুই মেদিনীপুরে। মঙ্গলবারেও বজায় থাকবে বৃষ্টিপাত। বৃষ্টি হবে কলকাতা, হাওড়া, উত্তর এবং দক্ষিণ ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুরে। সোমবার উত্তরবঙ্গের জেলাগুলির মধ্যে দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ারে রয়েছে ভারী বৃষ্টির সর্তকতা। ভারী বৃষ্টির সর্তকতা রয়েছে কোচবিহার, মালদাহ এবং উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুরেও।

ভারী বৃষ্টির জেরে মৎস্যজীবীদের সমুদ্রযাত্রার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। রবিবারের মধ্যে মাঝ সমুদ্র থেকে তাদের ফিরে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল আগেই। আজ কলকাতা এবং তার পার্শ্ববর্তী এলাকায় দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩১.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস-এর আশেপাশে যারা স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি কম। দিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৪.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস-এর আশেপাশে।বাতাসের আপেক্ষিক আদ্রতার পরিমাণ থাকবে সর্বাধিক ৯৭ শতাংশ এবং সর্বনিম্ন ৭৭ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় মোট বৃষ্টির পরিমাণ ১৫.৭ মিলিমিটার।

দিল্লির মৌসম ভবন সূত্রে খবর, আরব সাগর ও বঙ্গোপসাগরের উপর দুটি নিম্নচাপ স্পষ্ট। দক্ষিণ-পূর্ব আরব সাগরে রয়েছে একটি নিম্নচাপ এবং অন্য একটি নিম্নচাপ রয়েছে মধ্য বঙ্গোপসাগর ও উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর এর উপরে। এই নিম্নচাপটি দক্ষিণ উড়িষ্যা ও অন্ধ্র প্রদেশ উপকূলে অবস্থান করছে। ইতিমধ্যেই শক্তি হারিয়েছে। এই নিম্নচাপের অভিমুখ বর্তমানে উত্তরপ্রদেশ। এর ফলে উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে বইতে পারে ঝোড়ো হাওয়া।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে, সোমবার দক্ষিণবঙ্গের আবহাওয়া খারাপ হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের প্রায় সব জেলাতেই বৃষ্টিপাত চলবে মঙ্গলবার পর্যন্ত। ওদিকে উপকূলের জেলাগুলিতে বৃষ্টির পূর্বাভাস বেশি। নিম্নচাপ রয়েছে তেলেঙ্গানার উপরে। যা ক্রমশ উত্তর-পশ্চিমের সরে উত্তরপ্রদেশের দিকে অগ্রসর হবে। এই নিম্নচাপের প্রভাবে ওড়িশা মধ্যপ্রদেশ এবং উত্তর প্রদেশের রয়েছে ভারী বৃষ্টির সর্তকতা। পশ্চিমীঝঞ্জা ও পুবালি হাওয়ার সংঘাতের সম্ভাবনা তৈরি হচ্ছে উত্তর-পশ্চিম ভারতে। হরিয়ানা, চন্ডিগড়, রাজস্থান, উত্তরাখান্ড, হিমাচলপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ-এ রয়েছে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা আগামী বেশ কয়েকদিন। সোমবার প্রবল বৃষ্টিপাত হতে পারে। প্রবল বৃষ্টিপাত হতে পারে পশ্চিম-উত্তর প্রদেশ এবং উত্তরাখণ্ডের বেশ কিছু এলাকায়।

Related Articles

Back to top button