নিউজঅফবিটভাইরাল

চাকরি ছেড়ে মডেলিং শুরু, বছরে ৮৬ লক্ষ টাকা উপার্জন ২১ বছরের যুবতীর

স্বচ্ছন্দে সংসার চালাতে পাল্টে ছিলেন মোট চারটি চাকরি। কিন্তু কোনো ভাবেই সংসারের অভাব অনটন যেন দুর হতেই চাইছিল না। মাকে নিয়ে একা থাকতেন তিনি। তাঁর ভাগ্য বদলে দেয় একটি বিশেষ অ্যাপ। সেই অ্যাপের দৌলতে খোলামেলা ছবি পোস্ট করা শুরু করতেই জেসিকা ক্যাসওয়েল উপার্জন করেছিলেন বছরে ১ লক্ষ ইউরো।

জেসিকার কথায়, মাত্র ১৬ বছর বয়সে তাঁকে ছাড়তে হয়েছিল স্কুল। নিজেই তখন থেকে উপার্জনের পথ খুঁজতে শুরু করেছিলেন। প্রথমে কাজ করতেন একটি রেস্তোরাঁয়। সেই কাজ খুব বেশিদিন পছন্দ না হওয়ায় পরিবর্তন করে কাজ শুরু করেন একটি সংস্থার ম্যানেজার পদে। তারপরও পছন্দ হয়নি সেই কাজ। এরকম ভাবেই মোট চারটি পেশা বদলে ছিলেন নিজের। কোন পথ না পেয়ে তিনি নিজেই পরে সিদ্ধান্ত নেন সেই বিশেষ একাউন্ট খুলে নিজের শরীরের খোলামেলা ছবি সেখানে পোস্ট করবেন। প্রথম দিকটা খুব ভালোভাবে না কাটলেও পরে বেশ ভালো ভাবেই কেটেছে সেখানে। একটা সময় তিনি এতটাই টাকা উপার্জন করতে শুরু করেন যে সিদ্ধান্ত নেন চাকরি থেকে বেরিয়ে আসার। যদি পূর্ণ সময় এই কাজ করা যায় তাহলে নিজের একটা স্থায়ী উপার্জন হবে তিনি এমনটাই মনে করেছিলেন তখন। আর এর মাধ্যমেই হাল ফিরবে সংসারে এমনটাই ভেবেছিলেন তিনি।

যেমন ভাবনা তেমন কাজ। তারপরেই সেই বিশেষ অ্যাপ এর স্থায়ী মডেল হয়ে ওঠেন তিনি। প্রতিনিয়ত লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকে তার সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা। ২০২০ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত তিনি তার ছবি এবং ভিডিওর মাধ্যমে উপার্জন করে ফেলেছেন এক লক্ষ ইউরো। আমেরিকার হিসাবে ১ লক্ষ ৫০ হাজার ডলারের বেশি। ভারতীয় মুদ্রায় যা হিসাব করলে দাঁড়ায় ৮৬ লক্ষ টাকা। এই টাকা দিয়ে তিনি কিনে ফেলেছেন একটি বাড়ি ও। এখন তিনি যথেষ্ট ভাল রয়েছেন।

এক সংবাদমাধ্যমের কাছে জেসিকা জানিয়েছিলেন, ‘‘আমার পরিবারে এখন নিরাপত্তা আছে। আমি মা-কে নিরাপদে রাখতে পারছি। আর এখনই থামার কোনও প্রশ্ন নেই। আমি এখন নিজের ‘বস’। স্বাধীন ভাবে কাজ করি। কাজ করে যেতে চাই।’’

Related Articles

Back to top button