নিউজঅর্থনীতি

আপনার কাছে ৫০ পয়সার কয়েন রয়েছে? থাকলে পেতে পারেন ১ লক্ষ টাকা, রইল বিস্তারিত

এবারে পুরনো টাকা থাকলেই লাখপতি হওয়ার সুযোগ একেবারে হাতের মুঠোয়। তবে এটা কোন বিরল ঘটনা নিশ্চয়ই নয় কারণ এর আগেও অনেকবারই এরকম সুযোগ এসেছে সবার সামনে। অনেকেরই শখ রয়েছে পুরনো টাকা এবং পয়সার নিজের সংগ্রহশালায় জমিয়ে রাখা। মুদ্রা সংগ্রহকারীরা প্রকৃতপক্ষে ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংকের জারি করা পুরনো মুদ্রা কেনার ব্যাপারে নতুন করে কিছুদিন ধরেই আগ্রহ দেখাতে শুরু করেছে। একটি অনলাইন পোর্টালে এমনই দৃশ্য আবারো দেখা গেল। ওএলএক্স (OLX) অনলাইন পোর্টালের কথা সবারই জানা। এবারে সেই ফোটালেই বিক্রি হচ্ছে ১০০ লক্ষ টাকায় পুরনো ৫০ পয়সার কয়েন।

তবে নিশ্চয়ই দেখে যেকোনো ৫০ পয়সা থাকলেই এমন সুযোগ মিলবে এমনটা কিন্তু নয়। ২০১১ সালে ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংকের পক্ষ থেকে এক ধরনের বিশেষ ৫০ পয়সা বের করা হয়েছিল। যা বর্তমানে সংগ্রাহকদের নজর কেড়েছে। সেই পুরনো পয়সা বিক্রির ক্ষেত্রে ওএলএক্স এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইট https://www.olx.in/-এ ভিজিট করতে হবে।

এবার আসা যাক কিভাবে এই ৫০ পয়সা বিক্রয় করা যাবে! প্রথমেই তৈরি করে ফেলতে হবে নিজের একটি প্রোফাইল। প্রোফাইল তৈরী হয়ে গেলে ৫০ পয়সার সেই মুদ্রার একটি তালিকা দেখা যাবে। সেখানে ৫০ পয়সার কিছু ভালো ভালো ছবি তুলতে হবে যেটায় স্পষ্টভাবে যে সেই ৫০ পয়সাটি ২০১১ সালের। এর পরেই ক্রেতারা এই বিরল পয়সাটি কেনার জন্য যোগাযোগ করবে নির্দিষ্ট ব্যক্তির সঙ্গে। ভাগ্যবান হলে আপনার হাতে রয়েছে লাখপতি হওয়ার সুযোগ।

শুধুমাত্র ওএলএক্স পোর্টালেই নয় এছাড়াও পুরনো এবং সংগ্রহযোগ্য পয়সা এবং নোট বিক্রি করতে অন্যান্য অনেক সাইট রয়েছে। এরমধ্যে উল্লেখযোগ্য ইন্ডিয়ামার্ট। তবে এই ধরনের ওয়েবসাইটে প্রত্যেকেরই সবসময় ইউপিআই (UPI) জালিয়াতি থেকে খুব সতর্ক থাকা উচিত। কোনোভাবেই কোনো অবস্থাতেই অনলাইন প্লাটফর্মে একজন বিক্রেতার ক্রেতার কাছে ইউপিআই ব্যবহার করে টাকা স্থানান্তর করা একদমই উচিত নয়।

Related Articles

Back to top button