অফবিটনিউজ

আপনার কাছে ২ টাকার পুরনো কয়েন আছে? থাকলে পেতে পারেন ৫ লক্ষ টাকা, রইল বিস্তারিত

পুরানো টাকা বা কয়েন যদি আপনার কাছে থাকে তাহলে খুব সহজেই আপনি কয়েক লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারেন। কারণ বর্তমানে বাজারে পুরানো এই টাকা এবং কয়েনের চাহিদা যথেষ্টই বাড়ছে। এই উপায় ব্যবহার করেই রাতারাতি আপনি লাখপতি হয়ে যেতে পারেন। কিন্তু কিভাবে এই টাকার মাধ্যমে আপনি লক্ষাধিক টাকা আয় করবেন? জেনে নিন বিস্তারিত।

ভারতে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ধরনের কয়েন অথবা নোট চালু হয়েছিল। এর মধ্যে অনেকগুলি বর্তমানে বন্ধও হয়ে গিয়েছে পুরোপুরি। এমনই ২ টাকার বিভিন্ন কয়েন চালু হয়েছিল বিভিন্ন সময়ে। তার মধ্যেই কয়েকটি বিশেষ কয়েন থেকে কয়েক লক্ষ টাকা আয় করার উপায় আছে আপনার হাতে। দেশে চলতি বিভিন্ন ওয়েবসাইটে সহজেই এই কোয়েনগুলি বিক্রি করে দেওয়া যায়।

২ টাকার একটি বিশেষ কয়েন চালু হয়েছিল ১৯৯৪ সালে। এই কয়েনের পিছনে একটি ভারতের পাতাকা আঁকা আছে। এই বিশেষ কয়েনটির দাম একটি ওয়েবসাইটে ৫ লক্ষ টাকা উঠেছে। এছাড়াও স্বাধীনতার আগের ২ টাকার কিছু কয়েনে রাণি ভিক্টোরিয়ার ছবি প্রিন্ট করা হয়েছিল। এই বিশেষ কয়েনটির দাম উঠেছে ২ লক্ষ টাকা। এছাড়াও ১৯১৮ সালে জর্জ কিং এম্পেরারের ছবি প্রিন্ট করা কয়েনের বাজার মূল্য ৯ লক্ষ টাকা।

পুরানো জিনিস কেনাবেচা সংক্রান্ত ওয়েবসাইট Quikr এ সহজেই বিক্রি করা যাচ্ছে এই কয়েনগুলি। ক্রেতা বিক্রেতার মধ্যে দরদামের মাধ্যমে খুব সহজেই মূল্য নির্ধারিত হচ্ছে কয়েন গুলির। বর্তমানে এই ধরনের কয়েনের চাহিদা তুঙ্গে। ফলে খুব সহজেই লাখপতি হতে চাইলে আপনার কাছে যদি এরকম যে কোনো একটি কয়েন থাকে তাহলেই হবে। এর জন্য আপনাকে Quikr এ বিক্রেতা হিসেবে যুক্ত হতে হবে। একবার বিক্রেতা হিসেবে যুক্ত হয়ে গেলে খুব সহজেই আপনি ওখানে আপনার কাছে থাকা ২ টাকার কয়েনটির ছবি আপলোড করে সেটি বিক্রি করে দিতে পারবেন।

Back to top button