নিউজ

সপ্তমী থেকে দশমী তুমুল বৃষ্টিতে ভাসবে এইসব জেলা, কড়া সতর্কবার্তা জারি আবহাওয়া অফিসের

পুজোতেও নেই রেহাই, ফের ধেয়ে আসতে চলেছে ঘূর্ণিঝড়। আবহাওয়া দফতর সূত্রের খবর, দেশ থেকে বর্ষা-বিদায় পর্ব শুরু হলেও এখনো রাজ্যে দক্ষিণ পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বেশ সক্রিয়। বঙ্গোপসাগরের উপর পরপর তৈরি হয়ে চলেছে একের পর এক নিম্নচাপ। নিম্নচাপের মধ্যে সক্রিয় মৌসুমী বায়ু। এই আবহে আগামী ১০ ই অক্টোবরের মধ্যে আন্দামান সাগরে তৈরি হওয়ার আশংকা রয়েছে আরও একটি নিম্নচাপ। সেই নিম্নচাপের প্রভাবে আগামী ১৩ ই অক্টোবর থেকে ১৫ ই অক্টোবর পর্যন্ত কলকাতাসহ দক্ষিণবঙ্গের বেশকিছু জেলায় হতে পারে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত।

কলকাতার আকাশ আজকে আংশিক মেঘলা থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। হতে পারে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত। আজ স্বাভাবিকের থেকে তাপমাত্রা থাকতে পারে দুই থেকে তিন ডিগ্রি বেশি। বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ বেশি থাকায় অস্বস্তিকর গরম বজায় থাকবে এদিন। আগামী এক দিনে কলকাতার দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ৩৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস এবং সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস এর আশেপাশে।

ওদিকে বৃহস্পতিবার শক্তি হারিয়ে বেশ কিছুটা দুর্বল হয়ে পড়েছে ঘূর্ণাবর্ত। এরজন্যে রাজ্যে বৃষ্টির সামান্য হলেও কমতে শুরু করেছে। তবে আবার সৃষ্টি হওয়া নিম্নচাপের প্রভাবে আবারো বৃষ্টিপাত হওয়ার আশঙ্কা করছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। আগামী রবিবার অর্থাৎ পঞ্চমীর দিনে আন্দামান সাগরে আরো একটি নিম্নচাপ হতে পারে বলে আশঙ্কা করছে হাওয়া অফিস। নিজের শক্তি বাড়িয়ে উত্তর অন্ধ্রপ্রদেশ এবং ওড়িশার দিকে অগ্রসর হবে সেই নতুন নিম্নচাপ। আগামী চার থেকে পাঁচ দিনের মধ্যে নিম্নচাপ উপকূল অঞ্চলের দিকে পৌঁছে যাবে। যার জেরে ঘূর্ণিঝড়ের মুখেও পড়তে পারে উপকূলবর্তী অঞ্চল গুলি।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে খবর, আগামী কয়েকদিন দক্ষিণবঙ্গের আকাশ মেঘলা থাকার পাশাপাশি হতে পারে বিক্ষিপ্তভাবে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাত। শনিবার থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ কম থাকলেও বৃষ্টিপাতের পরিমাণ কিছুটা হলেও বাড়বে উত্তর এবং দক্ষিণ বঙ্গে।

Related Articles

Back to top button