নিউজ

আগামী ২৪ ঘন্টায় বাংলার দিকে দ্রুত বেগে ঘনিয়ে আসছে দুর্যোগ, সতর্কবার্তা জারি করল হাওয়া অফিস

গত রবিবার থেকে সারা রাত ধরে অঝোরে বৃষ্টি হয়ে চলেছে। আজ মঙ্গলবার সকালে কিছুটা বৃষ্টির হাত থেকে বঙ্গবাসীর রেহাই মিললেও এখনই পিছু ছাড়ছে না বৃষ্টি। চলতি মাসের শেষের দিকে আরও দুটি নতুন ঘূর্ণাবর্তের সৃষ্টি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। এই ঘূর্ণাবর্তের জেরে দক্ষিণবঙ্গের বেশকিছু জেলাতে বৃষ্টির রেশ জারি থাকবে। ঢাকে কাঠি পড়ার সপ্তাহ দুয়েক আগে আবারও বৃষ্টিতে ভাসতে চলেছে দক্ষিণবঙ্গ।

আগামী ২৪ ঘন্টায় বাংলার দিকে দ্রুত বেগে ঘনিয়ে আসছে দুর্যোগ, সতর্কবার্তা জারি করল হাওয়া অফিস

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে খবর, আগামী শনিবার অর্থাৎ ২৫ শে সেপ্টেম্বর নাগাদ উত্তর-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে তৈরি হতে পারে একটি নতুন ঘূর্ণাবর্ত। এই ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হওয়ার তিন দিনের মধ্যে তৈরি হবে আরও একটি নতুন ঘূর্ণাবর্ত। যে ঘূর্ণাবর্ত দক্ষিণ চীন সাগরে টাইফুনের প্রভাবে তৈরি হতে চলেছে। কখনো কখনো দক্ষিণ চীন সাগরের কোন টাইফুন কিংবা নিম্নচাপ যদিও বা দুর্বল হয়ে পড়ে সেটি বঙ্গোপসাগরে এসে আবার নতুন করে শক্তি সঞ্চয় করতে পারে। এই ভাবেই চলতি মাসের শেষের দিকে দুটো ঘূর্ণাবর্ত তৈরীর আশঙ্কা থাকছে। যে ঘূর্ণাবর্ত গুলির অভিমুখ হতে পারে বাংলা এবং ওড়িশার উপকূলের দিকে। স্থলভাগের ঢোকার আগে অনেকটা পথ অতিক্রম করবে জলভাগের উপর দিয়ে এর ফলে ঘূর্ণাবর্ত আরো শক্তিশালী হয়ে ওঠার আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। তবে ঘূর্ণাবর্ত যে একেবারে তৈরি হতেই পারে এই ব্যাপারে কোন নির্দিষ্ট পূর্বাভাস দেয়নি এখনো পর্যন্ত আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। আবহাওয়াবিদদের মতে, আপাতত পরিস্থিতির ওপর নজর রাখা হচ্ছে রোজ। আদৌ পরে নিম্নচাপ হবে কিনা তা কিন্তু এখনই স্পষ্ট নয়।

আগামী ২৪ ঘন্টায় বাংলার দিকে দ্রুত বেগে ঘনিয়ে আসছে দুর্যোগ, সতর্কবার্তা জারি করল হাওয়া অফিস

এমনিতেই ঘূর্ণাবর্ত এবং মৌসুমী অক্ষরেখার এই দুয়ের জেরে রবিবার রাত থেকে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে যে পরিমান বৃষ্টি হয়েছে তা অকল্পনীয়। লাগাতার বৃষ্টির জেরে একাধিক অঞ্চল হয়ে পড়েছে। জলমগ্ন হয়ে পড়েছে কলকাতা, দুই ২৪ পরগনা হাওড়া হুগলির বিস্তীর্ণ এলাকা। আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে খবর, বুধবার পর্যন্ত রাজ্যের একাধিক জেলায় হবে টানা বৃষ্টিপাত। গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের ওপর অবস্থান করছে এই ঘূর্ণাবর্ত। অবস্থান করছে একটি মৌসুমী অক্ষ রেখা ও। এই দুয়ের জেরে বাংলার আকাশে আবারো কালোমেঘের আশঙ্কা দেখতে পাচ্ছেন আবহাওয়াবিদরা। এই আশঙ্কার জেরে মৎস্যজীবীদের সমুদ্রে যেতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। আগামী বেশ কয়েকদিন ভারী বৃষ্টির জেরে নদীর জলস্তর বাড়ার সম্ভাবনা থাকছে।

আগামী ২৪ ঘন্টায় বাংলার দিকে দ্রুত বেগে ঘনিয়ে আসছে দুর্যোগ, সতর্কবার্তা জারি করল হাওয়া অফিস

রবিবার রাত থেকে একটানা বৃষ্টির জেরে একেবারে রেকর্ড হারে কমে গিয়েছে তাপমাত্রা। আজ দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা থাকবে ২৬.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস এর আশেপাশে যারা স্বাভাবিকের থেকে ৭ ডিগ্রি কম। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা থাকবে ২৪.৬ ডিগ্রী সেলসিয়াসের কাছাকাছি। বাতাসের আপেক্ষিক আদ্রতার পরিমাণ সর্বাধিক ৯৮ শতাংশ এবং সর্বনিম্ন ৮৯ শতাংশ থাকবে। শেষ একদিনের মোট বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ১৬০.২ মিলিমিটার। আবহাওয়া দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায় কমবে বৃষ্টির প্রভাব। তবে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে দুই মেদিনীপুর, দক্ষিণ ২৪ পরগনা, ঝাড়গ্রাম, বাঁকুড়া এবং পুরুলিয়ার। বুধবার রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চল জেলাগুলিতে থাকছে ভারী বৃষ্টির সর্তকতা।

Related Articles

Back to top button