লাইফ স্টাইল

পাঁপড় দিয়ে বানিয়ে ফেলুন অসাধারণ একটি তরকারি, যা হার মানাবে মাছ-মাংসের স্বাদকেও, রইলো রেসিপি

পাপড় ভাজা, নামটা শুনলেই জিভে জল এসে যায়। তবে পাঁপড় ভাজা খেয়ে খেয়ে তো সকলেই একঘেয়ে হয়েছে, এবারে পাপড়ের অন্য কিছু রেসিপি বানিয়ে করে দেখা যাক। জেনে নেয়া যাক কিভাবে পাপড়ের ডালনা বানানো যায়!

পাঁপড় দিয়ে বানিয়ে ফেলুন অসাধারণ একটি তরকারি, যা হার মানাবে মাছ-মাংসের স্বাদকেও, রইলো রেসিপি
ছবি: পাপড়ের ডালনা

উপকরণ:
৫-৬টা মশলা পাঁপড়
১-২টো আলু
১-২টো টমেটো
১/২চা চামচ আদা বাটা
১/২চা চামচ জিরে গুঁড়ো
১/২-১চা চামচ হলুদ গুঁড়ো
১/২-১চা চামচ লঙ্কা গুঁড়ো
১-২টা তেজপাতা
১/৪-১/২চা চামচ আস্ত জিরে
১-২টেবিল চামচ ঘি
স্বাদমতো চিনি
স্বাদমত লবণ
পরিমান মত সরষের তেল
১/২-১চা চামচ গরম মসলা গুঁড়ো

পাঁপড় দিয়ে বানিয়ে ফেলুন অসাধারণ একটি তরকারি, যা হার মানাবে মাছ-মাংসের স্বাদকেও, রইলো রেসিপি
ছবি: পাপড়ের ডালনা

প্রণালী:
১. প্রথমেই কড়াইয়ে তেল গরম করে পাঁপড় গুলো দুই টুকরো করে ভেজে তুলে নিতে হবে।

২. আলু ছোট ছোট পিসে করে কেটে নিতে হবে।

৩. তারপরে টমেটো গুলো কুচি করে কেটে নিতে হবে।

৪. একটা বাটিতে আদা বাটা ও সব গুঁড়ো মশলা অল্প জলে গুলে নিতে হবে(গরম মসলা বাদে), কারণ মসলা জলে গুলে রাখলে কড়াইয়ে দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে পুড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা কম থাকে।

৫. কড়াইয়ে তেল গরম হয়ে গেলে তাতে জিরে ও তেজপাতা ফোড়ন দিয়ে টুকরো টুকরো করে কেটে রাখা আলু গুলো দিয়ে দিতে হবে।

৬. আলু গুলো ভালো করে ভাজা হয়ে গেলে ওর মধ্যে টমেটো কুচি এবং জলে গুলে রাখা মসলাগুলো দিয়ে ভালো করে নাড়াচাড়া করে কষিয়ে নিতে হবে।

৭. মসলাগুলো কষানো হয়ে গেলে স্বাদমতো লবণ এবং চিনি দিয়ে নাড়াচাড়া করে পরিমাণমতো জল দিতে হবে।

৮. কম আঁচে ঢাকনা দিয়ে রান্না করা আবশ্যক। আলু ভালোভাবে সেদ্ধ হয়ে গেলে ওর মধ্যে টুকরো করে আগে ভেজে রাখা পাঁপড় ও ঘি দিয়ে গ্যাস অফ করে দিতে হবে।

৯. এবার, গরম গরম একটা পাত্রে ঢেলে গরম মসলা গুঁড়ো ছড়িয়ে ঢাকা দিয়ে রাখলেই তৈরি গরম গরম পাঁপড়ের ডালনা।

Related Articles

Back to top button