লাইফ স্টাইল

ভাতের সঙ্গে খাওয়ার জন্য বানিয়ে ফেলুন নিরামিষ লাউ মালাইকারি, শিখে নিন রেসিপি

ভোজন রসিক বাঙালি খেতে খুব ভালোবাসেন। মাছ, মাংস, ডিম আমিষ জাতীয় যে কোনো রান্না পেলে তারা চেটেপুটে খান। কিন্তু রোজ রোজ তো আমিষ খাওয়া সম্ভব নয়, নিরামিষের দিনগুলিতে নিরামিষ রান্নায় চলে। এখন নিরামিষের দিন কী নিরামিষ রান্না খাবেন, তাই নিয়ে সবাইকেই সকাল থেকে ভাবতে বসতে হয় ‌‌‌‌। আজকে বলবো নিরামিষের (veg recipe) একটি দুর্দান্ত রেসিপির কথা। নিরামিষের দিনে নিরামিষ লাউয়ের মালাইকারির রেসিপি আজকে বলবো।

আমিষের দিনে চিংড়ির মালাইকারি সকলেই চেটেপুটে খান, কিন্তু নিরামিষের দিনে লাউয়ের মালাইকারি করে সকলকে চমকে দিন। নিরামিষ লাউয়ের মালাইকারি বানানোর উপকরণ গুলি জেনে নিন।

নিরামিষ লাউয়ের মালাইকারি বানানোর উপকরণঃ নিরামিষ লাউয়ের মালাইকারি বানানোর জন্য লাউ লাগবে। আন্দাজ অনুযায়ী লাউ ও সরষের তেল লাগবে। এছাড়া নারকেল কোড়া ও দুধ লাগবে। এই রেসিপিটি বানানোর জন্য গোটা জিরে ও শুকনো লঙ্কা লাগবে। নিরামিষ লাউয়ের মালাইকারিতে দেওয়ার জন্য আন্দাজমতো আদাবাটা নিয়ে নেবেন। এর সাথে হলুদ গুঁড়ো, নুন চিনি ও পরিমাণমতো নিয়ে দেবেন।

নিরামিষ লাউয়ের মালাইকারি বানানোর পদ্ধতিঃ
প্রথমে বাজার থেকে লাউ কিনে এনে ভালোমতো ধুয়ে নিন। তারপর লাউয়ের মালায়কারি বানানোর জন্য সেগুলি কেটে নিন। এরপর কড়াই নিয়ে তাতে দু থেকে তিন চামচ সর্ষের তেল দিয়ে দিন। এরমধ্যে জিরে, শুকনো লঙ্কা ফোঁড়ন দিয়ে দিন। তারপর এই কড়াইয়ের মধ্যে আদা বাটা ও কেটে রাখা লাউ দিয়ে দিন। এক এক করে এরমধ্যে স্বাদ অনুযায়ী নুন, অল্প একটু চিনি, ও অল্প একটু হলুদ গুঁড়ো দিয়ে দিন। এরপর সব শুদ্ধ একটা খুন্তি দিয়ে নাড়তে থাকুন।

কিছুক্ষণ নাড়ানোর পর নারকেলের দুধ দিয়ে ভালো করে নেড়ে নিন, তারপর এর মধ্যে পরিমাণমতো গরম জল দিন। কিছুক্ষণ নেড়েচেড়ে নিয়ে একটি পাত্র দিয়ে কড়াইটি ঢাকা দিয়ে দিন। 10 থেকে 15 মিনিট এরকম ঢাকা দিয়ে রাখুন, তারপর ঢাকা খুলে এর মধ্যে কুড়ে রাখা নারকেল দিয়ে দিন। সব শুদ্ধ একবার ভাল করে নাড়িয়ে নিন। ব্যাস আপনার নিরামিষ লাউয়ের মালাইকারি রেডি এবার গরম গরম সার্ভ করুন।

Related Articles

Back to top button