লাইফ স্টাইল

ভাতের সঙ্গে খাওয়ার জন্য বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের ‘নারকেল চিংড়ি’, রইল রেসিপি

করোনার প্রকোপে যেখানে মানুষের বাইরে বেরোনো একদমই বন্ধ হয়ে গিয়েছে সেখানে একমাত্র ভরসা নিজের রান্না করা জিনিসপত্রই। বাইরে না বেরিয়ে একেবারে রেস্টুরেন্টের স্বাদ পেতে নিমিষেই তৈরি করে নেয়া যায় নারকেল চিংড়ি। যেটি ঘটি-বাঙাল নির্বিশেষে সবাই চেটেপুটে খেতে পারেন। চিংড়ি মাছের মালাইকারি কিংবা ডাব চিংড়ি খাদ্য রসিক বাঙালি মাঝেমধ্যেই খেয়ে থাকেন। তবে এবার একবার চেখে দেখা যেতে পারে নারকেল চিংড়ি। প্রথমেই দেখে নেয়া যাক নারকেল চিংড়ি রান্না করার জন্য কি কি উপকরণ প্রয়োজন।

উপকরণ:
১. চিংড়ি (একটু বড় মাপের) ২. পেঁয়াজ, আদা, রসুন (বাটা)
৩. টমেটো (বাটা)
৪. কাঁচা লঙ্কা ও ধনেপাতা (কুচি)
৫. হলুদ, লঙ্কা ও গরম মশলা (গুঁড়ো)
৬. নারকেল কোড়া
৭. নারকেলের দুধ
৮. সর্ষে (বাটা)
৯. ঘি (পরিমাণমত)
১০. স্বাদমতো নুন
১১. সামান্য পরিমাণে চিনি
১২. সরষের তেল

এবার দেখে নেয়া যাক কিভাবে কি কি প্রণালী অবলম্বন করে তৈরি করা যাবে নারকেল চিংড়ি:
১. প্রথমে বাজার থেকে কিনে আনা চিংড়ি মাছ গুলিকে শিরা ছিঁড়ে ভালো করে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে।
২. তারপরে চিংড়ি মাছ গুলিকে নুন এবং হলুদ মাখিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিয়ে গরম তেলে ভালো করে ভেজে নিতে হবে।
৩. চিংড়ি মাছ গুলোকে ভাল করে ভাজা হয়ে গেলে সেগুলি তেল থেকে নামিয়ে নিয়ে সেই পেলে আস্তে আস্তে পেঁয়াজ, আদা, রসুন বাটা দিয়ে দিতে হবে। ভালো করে সেগুলিকে নাড়াচাড়া করে নিতে হবে।

৪. পেঁয়াজবাটা ভালো করে বাদামী হয়ে এলে এর মধ্যে কিছু টমেটো বাটা এবং তারসাথে সরষে বাটা ও কাঁচা লঙ্কা কুচি মিশিয়ে দিতে হবে।
৫. এবার মসলাটি ভালো করে কষিয়ে নিয়ে মিশিয়ে দিতে হবে আগে থেকে ভেজে রাখা চিংড়ি মাছ গুলি। এর সাথে যোগ করতে হবে নারকেলকোরা এবং নারকেলের দুধ।
৬. ভালো করে মিশ্রনটিকে করাইয়ের মধ্যে ৫ থেকে ৭ মিনিট ফুটিয়ে নিতে হবে। এই অবস্থায় গ্যাসের আঁচ অবশ্যই হালকা থেকে মাঝারি ফ্লেমে থাকবে।
৭. উপর থেকে হালকা করে ঢাকা সরিয়ে ঘি এবং গরম মশলা গুঁড়ো দিয়ে গরম গরম নামিয়ে নিতে হবে নারকেল চিংড়ি।

Related Articles

Back to top button