লাইফ স্টাইল

ভাতের সঙ্গে খাওয়ার জন্য বানিয়ে ফেলুন ডিমের এই ইউনিক রেসিপি, স্বাদ হবে দুর্দান্ত, রইলো রেসিপি

ডিম খেতে ভালোবাসেন না এরকম মানুষ হয়তো এই পৃথিবীতে বড়ই কম। তবে আবার রোজ রোজ একই রকম ডিমের রেসিপি খেতেও অনেকেরই ভালো লাগেনা। এক্ষেত্রে সবারই মন চায় যে রোজ রোজ একই রেসিপি না খেয়ে একদম ইউনিক কিছু তৈরি কোরে নেওয়া। আজকে সবার মুখের স্বাদ পরিবর্তন করতেই নিয়ে আসা হল ডিমের একেবারে ইউনিক রেসিপি। যা একবার খেলে রীতিমতো এই খাবারের প্রতি প্রেমে পড়ে যেতে বাধ্য সকলেই। আর বেশি দেরি না করে এবার এই দেখে নেওয়া যাক ডিমের এই নতুন ইউনিক রেসিপি বানানোর জন্য কি কি উপকরণ প্রয়োজনীয়।

উপকরণ:

১. ডিম
২. পেঁয়াজ
৩. কাঁচা লঙ্কা
৪. স্বাদমতো নুন
৫. গোলমরিচ গুঁড়ো
৬. তেজপাতা
৭. শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো
৮. গোটা গরম মসলা
৯. জিরে
১০. রসুন
১১. হলুদ গুঁড়ো
১২. কাশ্মীরি লঙ্কাগুঁড়ো
১৩. জিরেগুঁড়ো
১৪. ধনে গুঁড়ো
১৫. চিনি
১৬. গরম মসলা

এবার দেখে নেওয়া যাক ডিমের এই নতুন রেসিপি বানানোর জন্য কি কি প্রণালী অবলম্বন করা প্রয়োজনীয়:

১. একটি বাটিতে প্রথমে ডিম ফাটিয়ে নিতে হবে। ফাটিয়ে নিয়ে ডিমের মধ্যে দিয়ে দিতে হবে পেঁয়াজ কুচি, কাঁচা লঙ্কা কুচি, স্বাদমতো নুন, গোলমরিচ গুঁড়ো। এবার সমস্ত উপকরণ খুব ভাল করে মিশিয়ে নিতে হবে।

২. এবারে কিছুটা পরিমাণে সাদা তেল নিয়ে কয়েকটা বাটি নিয়ে খুব ভালো করে মাখিয়ে নিতে হবে তেল।

৩. এবার ডিমের মিশ্রনটিকে একটি বাটিতে খুব ভালো করে ঢেলে নিতে হবে।

৪. জল গরম করে তাতে বাটিগুলিকে বসিয়ে দিতে হবে। গ্যাসের আঁচ বাড়িয়ে ঢাকা দিয়ে রাখতে হবে চার থেকে পাঁচ মিনিটের জন্য। তাহলে জলের ভাপেই ডিমগুলো সিদ্ধ হয়ে যাবে।

৫. এবারে চৌকো চৌকো করে পেঁয়াজ, টমেটো, লঙ্কা, আদা, রসুন কেটে নিতে হবে।

৬. এবারে কেটে নেয়া সবকিছুকে একটি মিক্সিং বলে পেস্ট করে নিতে হবে।

৭. বাটির মধ্যে থেকে ডিমগুলোকে বার করে নিতে হবে। এবার একটি কড়াইয়ে তেল দিয়ে দিতে হবে পরিমাণমত সাদাতেলের সঙ্গে গুঁড়ো লঙ্কা, হলুদ গুঁড়ো। এবারে ডিম গুলিকে খুব ভাল করে ভেজে নিতে হবে।

৮. এবারের ডিমগুলিকে তুলে নিয়ে কড়াইয়ে বেশ কিছু পরিমাণ-এর সাদা তেল দিয়ে তাতে দিয়ে দিতে হবে তেজপাতা, শুকনো লঙ্কা, ছোট এলাচ, লবঙ্গ, গোটা জিরে, গোলমরিচ দিয়ে বেশ কিছুক্ষণ নাড়াচাড়া করে পেঁয়াজকুচি দিয়ে দিতে হবে।

৯. পেঁয়াজকুচি ভাজতে ভাজতে তাতে অল্প লাল রং ধরলে, তাতে পূর্বের বেটে রাখা মশলাটা দিয়ে নিতে হবে, সাথে দিতে হবে হলুদের গুঁড়ো, কাশ্মীরী লঙ্কাগুঁড়ো, জিরে, ধনেপাতা (সবক’টিই আধ চা-চামচ)। স্বাদ ভাল করতে চিনি ও অল্প নুন দিয়ে নিতে হবে। সবকিছু মিশিয়ে, ভাল করে এবার কষিয়ে নিতে হবে।

১০. মশলার রঙে বদল এলে তাতে দু’কাপ জল দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নিতে হবে (সাথে এবারে পরিমাণ মত নুন দিয়ে নিয়ে নিতে হবে)।

১১. মশলা ফুটতে শুরু করলে, তাতে এবারে ভেজে রাখা ডিমগুলো ছেড়ে দিতে হবে।

১২. সবটা মিশিয়ে নিয়ে, ওভেনের আঁচ বাড়িয়ে, ঢাকনা দিয়ে ঢেকে রাখতে হবে। ৩-৪ মিনিট পরে খুললে দেখা যাবে , বাইরের ঝোল ডিমের মধ্যে গিয়ে ডিমের আয়তন পূর্বের চেয়ে বাড়িয়ে দিয়েছে।

ব্যস, ডিমের একদম অন্যরকম একটা মুখরোচক রান্না রেডি! নামানোর আগে অল্প গরম মশলা মিশিয়ে নিয়ে ১ মিনিট মত ফুটিয়ে নিলে স্বাদ আরো বেড়ে যাবে। ভাত, পোলাও, ফ্রায়েড রাইস যে-কোনো কিছুর সঙ্গেই খাওয়া যায় এটি। তাহলে, আজই একবার ট্রাই করে ফেলবেন নাকি বাড়িতে? শুভস্য শীঘ্রম!

Related Articles

Back to top button