অর্থনীতি

বাড়িতে ১০ টাকার এই নোট আছে? থাকলে পেতে পারেন ৫ লক্ষ টাকা, রইলো বিস্তারিত

মাত্র ১০ টাকার নোটেই রাতারাতি কোটিপতি হয়ে যাওয়ার সুযোগ একেবারে হাতের মুঠোয়। সচরাচর পথ চলাফেরা করতে গিয়ে অনেক সময়েই দেখা যায় বাস কিংবা অটোতে পুরানো নোট দিলে তারা নিতে নিমরাজি হন। প্রত্যেকের লক্ষ্য থাকে নতুন চকচকে নোট নেওয়ার। পুরনো নোটের অবস্থাই এমন অনাদরের কারণ। তবে এবার এই পুরনো নোট কিংবা পুরনো কয়েন রাতারাতি বদলে দিতে পারে আপনাদের ভাগ্য! এমন কিছু ওয়েব সাইট আছে যেখানে অ্যান্টিক কয়েন এবং নোটের চাহিদা একেবারে আকাশছোঁয়া।

মাত্র দশ টাকার নোটের বদলেই আপনি পেয়ে যাবেন ৫ লক্ষ টাকা। তবে সেই বিশেষ ১০ টাকার নোটটি প্রত্যেকের কাছে থাকা আবশ্যক। যদি সেই বিশেষ দশ টাকার নোট আপনাদের কাছে এই মুহূর্তে থাকে তাহলে ধরে নিন সেটা আপনার লটারি টিকিট। তবে নিশ্চয়ই ভাবছেন কি আছে ওই বিশেষ নোটে। তাহলে দেরি না করে বলা যাক কি রয়েছে সেই বিশেষ নোটে। প্রথম এই নোটটা ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে ভালো করে চেক করতে হবে নোটের মধ্যে সিরিয়াল নাম্বার ৭৮৬ সংখ্যাটি রয়েছে কিনা। যদিও এই সিরিয়াল নাম্বারের নোট অনেকদিন আগেই রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া ছাপা বন্ধ করে দিয়েছে। আর ঠিক এই কারনেই এই নোটটি হয়ে গিয়েছে অ্যান্টিক। এই দুষ্প্রাপ্য নোটের ভীষণ কদর বেড়েছে কেনাবেচার বাজারে।

করোনা লকডাউন এরপর থেকে অনলাইনের ওপর নির্ভরশীলতা প্রায় কয়েক হাজার গুণ বেড়ে গিয়েছে। এর আগেও অনলাইনের প্রবণতা থাকলেও বর্তমানে ঠিক যেভাবে অনলাইনে প্রবণতা বেড়েছে সেভাবে কখনোই লক্ষ্য করা যায়নি। অনলাইনের যুগে বাড়ি থেকে বেরোনো দরকার পড়বে না বাড়িতে বসেই লাখপতি হতে পারবেন এইবার। উদাহরণস্বরূপ বলা যায় ইন্ডিয়ার মত অনলাইন প্লাটফর্ম এর কথা।

তবে এবার জেনে নিন সেই নোটটি নিয়ে আপনাকে ঠিক কী কী করতে হবে।
১. প্রথমেই নিজেকে সেলার হিসেবে নথিভুক্ত করাতে হবে ক্লিপ ইন্ডিয়া সাইটে।
২. অ্যাকাউন্টটি তৈরি হয়ে গেলেই এরপর নিজের কাছে থাকা সেই বিশেষ দশ টাকার নোটের ছবি তুলে আপলোড করে দিতে হবে।
৩. একবার আপনি লাইভ হয়ে গেলেন আগ্রহী ক্রেতারা নিজেরাই আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করতে শুরু করবেন।
৪. তারপর আপনি আপনার মত করেই অ্যান্টিক মূল্যে বিশেষ বিশেষ নোটটি বিক্রি করতে পারবেন।

ক্লিকইন্ডিয়া পোর্টালের মাধ্যমে সরাসরি সেই নটি বিক্রি করতে পারবেন হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ও।

দশ টাকার নোট ছাড়াও ১, ২, ৫,১০, ২০,৫০,১০০, ২০০, ৫০০, ২০০০ টাকার নোটে ও ৭৮৬ এই বিশেষ নাম্বারটি থাকলে সেগুলো বিক্রি হতে পারবে চড়া দামে। এক্ষেত্রে মাথা রাখতে হবে জালিয়াতিরাও কিন্তু এই সাইটে একেবারে ওত পেতে বসে থাকে। অনেক সময় দেখা যায় জাল পুরনো নোট কিংবা কয়েনের ছবি আপলোড করে তারা নিজেদের ফাঁদ পাতে। সুতরাং একটু অসাবধান হলেই রয়েছে বিপদ। তাই সাবধানে থাকাই শ্রেয়।

Related Articles

Back to top button