বিনোদন

নিজেকে ‘বুদ্ধিমান’ বলে দাবি যশের, নুসরতের প্রেগন্যান্সি নিয়ে মুখ খুললেন না অভিনেতা

গতকাল থেকে পুরো স্যোশাল মিডিয়া তোলপাড় হয়ে গেছে একটাই বিষয় নিয়ে। নিখিল ও নুসরাতের দাম্পত্য কলহ নিয়ে যখন জল্পনা তুঙ্গে তখন গত পাঁচ দিন ধরে কিছুই বলেননি যশ দাশগুপ্ত। তবে অবশেষে বুধবার সন্ধ্যাবেলা যশের বক্তব্য এই জল্পনাকে আরও উস্কে দিয়েছে। কি বললেন যশ? যশ বললেন ‘চালাক মানুষ সমস্যার সমাধান করেন…বুদ্ধিমান এড়িয়ে যান!’ তবে নিজের এই মন্তব্যের মধ্যে দিয়ে কাকে চালাক বললেন অভিনেতা? কাকেই বা বোকা বললেন তিনি? কিন্তু এই মন্তব্যের পর আবারও চুপ হয়ে যান যশ।

কয়েকদিন ধরেই স্যোশাল মিডিয়া উত্তাল নুসরাতের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবরে। তার গর্ভের সন্তানের পিতৃপরিচয় নিয়ে যখন সবার মনে কৌতুহল জন্মেছে। তখন হঠাৎ করেই নুসরাত তার প্রাক্তন স্বামী নিখিলকে কটাক্ষ করে একটি বিবৃতি প্রকাশ করেন। সেখানে তিনি বলেন তাদের কখনও বিয়েই হয়নি তারা নাকি লিভ ইন রিলেশনশিপে ছিলেন। আবার অন্যদিকে নিখিলও নুসরাতের দিকে একের পর এক কটাক্ষবাণ ছুঁড়ে দেন।

এখন সারা স্যোশাল মিডিয়া জুড়ে নিখিল ও নুসরাতের একে অপরের প্রতি কাদা ছোড়াছুড়ি করতে ব্যস্ত। সেই সময় যশের এরকম মন্তব্য পুরো জল্পনাকে আরও উস্কে দিয়েছে। তাহলে কি যশ বলতে চাইলেন চালাক হলে তারকা দম্পতি নিজেদের মধ্যে সমস্ত সমস্যা মিটিয়ে নেতেন বা বুদ্ধিমান হলে পুরো ব্যাপারটাই গোপন রাখতেন?

অবশ্য তার এই মন্তব্য দেখে নেটিজেনদের কটাক্ষ করতে ছাড়েননি তাকে। একজন তো বলেছেন মন নুসরাতের মতন সরল সাদাসিধে মানুষ খুব অল্পই দেখতে পাওয়া যায়। তাই তাদের সংরক্ষণ করা উচিত। আবার কেউ কেউ তো বাবা হওয়ার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। একজন বলেন ‘আমরা আপনাকে বিশ্বাস করি। জানি আপনি কখনোই অনুরাগীদের হতাশ করবেন না। তাই সব কিছু নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাওয়ার আগে প্রকৃত সত্যি সামনে আনুন’। তবে এখন এই বিতর্কের জল ঠিক কতদূর এগোয় তাই দেখার।

Back to top button