বিনোদন

নাইটি-চুড়িদার বিক্রি করে চালাত সংসার, টলিউড অভিনেতা পার্থর জীবনী হার মানাবে সিনেমাকেও

টলিউডের অন্যতম অভিনেতা পার্থসারথি দেবের (Partha Sarathi Deb) কথা আজ কারি অজানা নয়। বিশেষত অভিনেতাকে দেখা যায় বাংলা কমেডিয়ান সিনেমা ধারাবাহিকে। এককথায় দর্শকের কাছে তিনি মন ভালো করার কারিগর। বাংলা চলচ্চিত্রে কমেডিয়ান মানে যার কথা প্রথম মাথায় আসে তিনি হলেন পার্থসারথি দেব।

নাইটি-চুড়িদার বিক্রি করে চালাত সংসার, টলিউড অভিনেতা পার্থর জীবনী হার মানাবে সিনেমাকেও

তবে তার এতটা সাফল্যের পথ খুব একটা সহজ ছিল না। সংসার চালাতে কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন নাইটি চুড়িদার বোঝাই করা ব্যাগ। প্রতিদিন নিয়ম করে ভোরে উঠেন এবং ট্রেন ধরতেন। তারপর পৌঁছে যেতেন হাটে। তবে জীবনে এতটা ওঠাপড়া থাকলেও কখনোই নিজের স্বপ্ন দেখা ছাড়েননি। অভিনয়ের প্রতি ভালোবাসায় তাকে তার জীবনের লক্ষ্যে পৌঁছে দিয়েছে।

নাইটি-চুড়িদার বিক্রি করে চালাত সংসার, টলিউড অভিনেতা পার্থর জীবনী হার মানাবে সিনেমাকেও

অভিনেতা পার্থসারথি দেব অভিনয় এর জন্যই বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে ভালো মাইনের চাকরি ছেড়ে দিয়েছেন হাসতে হাসতে। অভিনয়ের জগতে আসার আগে থিয়েটারে তার হাতেখড়ি হয়। টানা এক দশকেরও বেশি সময় ধরে থিয়েটারে তার হাতেখড়ি হয়েছে। যদিও শুধুমাত্র থিয়েটার দিয়ে তার দিন চলছিল না তাই সংসারের চাহিদা মেটাতে তাকে কাঁধে তুলে নিতে হয় নাইটি চুড়িদার বোঝাই ব্যাগ।

নাইটি-চুড়িদার বিক্রি করে চালাত সংসার, টলিউড অভিনেতা পার্থর জীবনী হার মানাবে সিনেমাকেও

তার অদম্য জেদ দেখে ভাগ্য যেন তার সহায় হয়েছিল। ঠিক ঐ সময় একটি ছোট্ট ধারাবাহিকে ছোট্ট চরিত্রে কাজ করার সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। যদিও চরিত্রটি অত গুরুত্বপূর্ণ ছিল না তবুও তিনি মন দিয়ে কাজ করেছিলেন। যার দাম তাকে দিয়েছিলেন স্বয়ং দর্শকেরা। ওই ছোট্ট চরিত্রের মাধ্যমেই প্রথম পরিচিতি পান তিনি। নিজের কর্মজীবন নিয়ে বেশ ভালোমতোই ঝুঁকি নিয়ে ছিলেন এক সময়। বছরের পর বছর তিনি বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে সংগ্রাম করেছেন কিন্তু কখনও ময়দান ছেড়ে পালিয়ে যাননি। প্রথমে প্রোডাকশন হাউজ থেকে তার জন্য কখনোই আলাদা করে গাড়ির ব্যবস্থা করা হয়নি তখন অটোতে কিংবা বাসে করেই নিজের খরচে যাতায়াত করতে হয়েছে অভিনেতাকে। সবকিছুর পরেও কিন্তু তার যাত্রা থেমে থাকেনি। শুটিংয়ের জন্য সুদূর আগরপাড়া থেকে কলকাতায় পৌঁছাবেন পার্থসারথি দেব। যদি কখনো বেশি রাত হয়ে যেত তাহলে এক বন্ধুর বাড়িতেই থেকে যেতেন তিনি।

নাইটি-চুড়িদার বিক্রি করে চালাত সংসার, টলিউড অভিনেতা পার্থর জীবনী হার মানাবে সিনেমাকেও

দিদি নাম্বার ওয়ান এর প্লাটফর্মে দাঁড়িয়ে নিজের জীবনের সেই সংগ্রামের দিনগুলির কথা অনায়াসে বলে গেছেন তিনি। অভিনয় জীবন নিয়ে অভিনেতার বক্তব্য,“এক সেকেন্ডও যদি কোনোও চরিত্র থাকে, সেই চরিত্র এতটাই ভালো করতে হবে যাতে তা ৯০ বছর টিকে থাকে”। বরাবর এই স্ট্রাটেজির উপরে ভর করে চলেছেন তিনি। আজ জীবনের মোড় ঘুরিয়ে তিনি প্রতিষ্ঠা পেয়েছেন বলিউডেও। এমনকি বলিউডের প্রথম সারির কমেডিয়ান হতে পেরেছেন তিনি! এর থেকে ভালো পাওয়া আর হয়তো কিছু হয় না। অভিনেতা পার্থসারথির স্পিরিটকে প্রতি পদে পদে কুর্নিশ জানিয়েছেন অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জি (Rachana Banerjee) ও। তবে শুধুমাত্র অভিনয়ই নয় তার গলায় রয়েছে মা সরস্বতীর বাস। অভিনয়ের পাশাপাশি বেশ ভালো গান করতে পারেন তিনি।

Related Articles

Back to top button