বিনোদন

মালা বদলের পরেও বিয়ে থামানোর চেষ্টা! টেস বুড়ির উপর বেজায় চটলেন মিঠাই ভক্তরা

ফিল্মি কায়দায় হাঁটু গেড়ে প্রপোজ করেছেন গুরুদেবের আশ্রমেই। সেখানেই বসেছে সিদ্ধার্থ ও মিঠাই-এর বিয়ের আসর। তবে এবারে পরিবার কিংবা দাদাই এর জন্য নয় একেবারে নিজেই মন থেকে মেনে নিয়েছেন বিয়ের ইনস্টিটিউশন। লাল-সাদা বেনারসিতে সেজে সিদ্ধার্থের সামনে ছাতনা তলায় হাজির হয়েছে মিঠাই (Mithai)। ওদিকে ধুতি পরতে নারাজ সিদ্ধার্থ জামা আর প্যান্ট পরেই বসেছেন বিবাহ করতে।

‘সিডাই’-এর বিয়ের আসরে হাজির ছিলেন টেস ও সোম। দুজনের কেউই চান না সিদ্ধার্থ এবং মিঠাই কাছাকাছি আসুক। তোর্সা বরাবরই সিদ্ধার্থ আর মিঠাই-এর বিয়ে ভাঙতে সিদ্ধহস্ত। ওদিকে বাড়ির পালিত বড় ছেলে সোম কিছুতেই চায় না সিদ্ধার্থের জীবনে মিঠাইয়ের রাজত্ব বজায় থাকুক! মিঠাই মোদক পরিবারের সদস্য হয়ে আসার পর থেকেই দাদু সমস্ত বিজনেসের ভার দিয়েছে তার ওপরেই। এর জন্যই মিঠাই-এর ওপর রাগ সোমদার। কারণ মিঠাই আসার আগে বিজনেসের সমস্ত কাজ সামলাত সেইই।

ওদিকে বিয়ের আসরে হন্তদন্ত হয়ে সিদ্ধার্থের বাবা সমরেশ হাজির হন আশ্রমে। নিজের ছেলে এবং মিঠাইকে বিয়ের আসনে দেখে একেবারেই রেগে আগুন তিনি। এমনকি দাদাই এর কাছে গিয়েও জিজ্ঞাসা করেন কেন সে বারবার মিঠাই এবং সিদ্ধার্থের বিয়ে দিতে নানা রকমের ছলচাতুরীর আশ্রয় নিচ্ছেন। সমরেশ খুব রেগে গিয়ে বলেন, ‘আবার একই ভুল করল সিদ্ধার্থ!’ এমনকি সে জানতে চান, ‘এখানে মিঠাই এলো কোথা থেকে?’

তবে কি আবারও থমকে যাবে মিঠাই ও সিদ্ধার্থের বিয়ে? আবারো মন ভাঙবে সবার? যদিও এই সব প্রশ্নের উত্তর ইতিমধ্যেই দর্শকেরা পেয়ে গিয়েছেন। যতটুকু এপিসোড গতকাল অব্দি সম্প্রচারিত হয়েছে সেটুকুতেই দেখা গিয়েছে বাবা সমরেশের বিরুদ্ধে গিয়ে মিঠাইকে স্ত্রী-এর যোগ্য সম্মান ইতিমধ্যেই দিয়ে ফেলেছে সিদ্ধার্থ। সেকথা বিয়ের মন্ডপের দাঁড়িয়ে স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছে বাবা সমরেশকেও। আগামী পর্বের প্রমতে ধরা পড়েছে মিঠাই ও সিদ্ধার্থের সিঁদুর দানের এক ঝলক।

বর্তমানে টিআরপির তালিকায় বেঙ্গল টপার হলো ধারাবাহিক মিঠাই। গত কয়েক মাস ধরেই টিআরপি তালিকায় শীর্ষে অবস্থান করছে এই ধারাবাহিক। মিঠাই অর্থাৎ অভিনেত্রী সৌমিতৃষাকে (Soumitrisha Kundoo) টেক্কা দিতে গিয়ে হার মানতে হয়েছেন মানালি, কনীনিকা, দেবশ্রী রায়, তৃনা সাহার মত তাবড় তাবড় অভিনেত্রীদের ও।

Related Articles

Back to top button