বিনোদন

টলিউডে তৈরি হচ্ছে মদন মিত্রের বায়োপিক, মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করবেন শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়

বরাবরই রাজনীতির ময়দানে একেবারে রঙিন মানুষ তিনি। তার হলদে রোদচশমা আর কেতাদুরস্ত পোশাকের কদর বেজায় নবীন প্রজন্মের কাছে। তার ‘ও লাভলি!’ এই বিশেষ শব্দ দুটি একসময় লোকমুখে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেছিল। রাজনৈতিক রণক্ষেত্রে এমন রঙ্গীন মানুষের জীবন কাহিনী এবার সিনেমার বড়পর্দায়। আশা করি পাঠক এতক্ষণে কিছুটা হলেও আভাস পেয়েছেন যে তিনি আসলে কে! তবে পাঠকের আগ্রহ আর ধরে না রেখে এবারে পরিষ্কার করে জানিয়ে দেওয়া যাক তার নাম।

আজ্ঞে হ্যাঁ, সকলের প্রিয় তথা নতুন প্রজন্মের মেয়েদের ক্রাশ তথা অন্যতম রঙিন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব মদন মিত্র (Madan Mitra)। মদন মিত্রের জীবনের কাহিনীর ওপর ভর করে তৈরি হবে আস্ত একটা বায়োপিক। যে সিনেমার পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন পরিচালক রাজা চন্দ্র (Raja Chanda)। মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করবেন অভিনেতা শাশ্বত চ্যাটার্জি (Saswata Chatterjee)। রাজনৈতিক আঙিনার সঙ্গে সঙ্গে বিনোদন দুনিয়াতেও বেশ জনপ্রিয় মদন মিত্র। প্রত্যেক তারকাদের সাথেই সদ্ভাব বজায় রেখেছেন তিনি। তিনি যে দলের সমর্থনকারী হোন না কেন ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির কাছে তিনি সকলের প্রিয় মদন দা। সুতরাং তার বায়োপিক তৈরি হবে বলে কথা দর্শকমহলে কৌতুহল থাকবে না এ আবার হয় নাকি!

অভিনেতা শাশ্বত চট্টোপাধ্যায় বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির বেশ জনপ্রিয় একজন। টলিউডের পাশাপাশি বলিউডেও রয়েছে তার বেজায় দাপট। একটার পর একটা হিন্দি চলচ্চিত্রে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করে ফেলেছেন তিনি। সদ্য অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত (Kangana Ranaut) সঙ্গে এক বিশেষ সিনেমার শুটিং শেষে দেশে ফিরেছেন তিনি। শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়ের মত একজন দক্ষ অভিনেতাকে দেখা যাবে মদন মিত্রের চরিত্রে, এই খবরটা জানতে পেরে সিনেপ্রেমীরা বেশ উত্তেজিত হয়ে উঠেছেন।

মদন মিত্রের বায়োপিক তৈরি হওয়া প্রসঙ্গে তিনি নিজে জানিয়েছেন,“বিগত দু-তিন বছর ধরেই বায়োপিকের প্রস্তাব আসছিল। ভোটে জেতা, ঘুরে দাঁড়ানো, মেসি-ব্রাজিল টিমকে নিয়ে আসা, জীবনে ইতিবাচক দিকটার সঙ্গে নেতিবাচক দিও তো থাকবে। ভাল-মন্দ মিশিয়েই মানুষ। তাই জীবনে কিছু লুকনো উচিত নয়।” তার জীবনে যেমন রয়েছে ইতিবাচক দিক তেমনি রয়েছে নেতিবাচক দিকও, সবকিছুই ফুটিয়ে তোলা হবে সিনেমার পর্দায়। কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে এই সিনেমার শুটিং শুরু হবে পুজোর আগেই। যেহেতু মদন মিত্রের বায়োপিক তখন বহু রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বকে যে সিনেমার পর্দায় দেখা যাবে তা বোধহয় আর আলাদা করে বলার প্রয়োজন রাখেনা।

Related Articles

Back to top button