বিনোদন

ছোট্ট গ্রাম থেকে টলিউডে পাড়ি, মঞ্চ থেকে পর্দা সর্বত্রই মন জয় করেছেন প্রশান্ত সূত্রধর

ভালোবাসা ক্ষমতা দখলের লড়াই আর এক প্রতিবাদের গল্প নিয়ে শুরু হচ্ছে নতুন ধারাবাহিক ‘মন মানে না’। আগামী ৩০ শে আগস্ট সন্ধ্যা ৬:৩০ থেকে কালার্স বাংলায় সম্প্রচারিত হবে সম্পূর্ণ ভিন্ন স্বাদের এই নতুন ধারাবাহিক।

ছোট্ট গ্রাম থেকে টলিউডে পাড়ি, মঞ্চ থেকে পর্দা সর্বত্রই মন জয় করেছেন প্রশান্ত সূত্রধর

গৌরি-রুদ্রের প্রেম আর বড়মার ক্ষমতা দখলের লড়াইয়ের গল্প থাকবে এখানে। অঞ্জনা বসু এখানে দোদন্ড প্রতাপ বড়মার চরিত্রে অভিনয় করছেন। অবশ্য শুধু গৌরি-রুদ্র নয় পাশে থাকছে রুদ্রর ছায়াসঙ্গী ভোলা‌। আজ পর্দার ভোলার বাস্তবের স্বপ্ন পূরণের গল্পই তুলে ধরব আপনাদের সামনে।

ভোলা যার আসল নাম প্রশান্ত সূত্রধর। উত্তরবঙ্গের কোচবিহার জেলায় এক সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারে জন্ম নিয়ে সে স্বপ্ন দেখেছিল অভিনেতা হওয়ার। তবে স্বপ্ন দেখেই থেমে থাকেননি তিনি নিজের জেদের উপর ভর করে পা বাড়িয়েছিলেন তিলোত্তমা কলকাতায়। তবে কলকাতায় আসার আগেই তার অভিনয় জগতে হাতেখড়ি হয়ে যায়। প্রখ্যাত মূকাভিনেতা স্বর্গীয় শংকর দত্তগুপ্ত তার পরিচয় করান রঙীন জগতের সাথে। অভিনয়কে পড়ার ও জানার টানে তিনি ভর্তি হন রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে। রাষ্ট্রপতি পুরস্কারপ্রাপ্ত নাট্যকার পরিচালক প্রবীর গুহর সান্নিধ্যে বুঝতে শুরু করেন অল্টারনেটিভ থিয়েটারকে। এই অল্টারনেটিভ থিয়েটারে নাটকের মাধ্যমে ভারতবর্ষের প্রত্যন্ত গ্রাম থেকে শুরু করে সুদূর বিদেশের মাটিতে পারি জমান প্রশান্ত।

ছোট্ট গ্রাম থেকে টলিউডে পাড়ি, মঞ্চ থেকে পর্দা সর্বত্রই মন জয় করেছেন প্রশান্ত সূত্রধর

তবে তিনি শুধু মাত্র নিজেকে অভিনয় জগতের সাথে আটকে রাখেননি। ক্রমশ তিনি লোকনাট্য ও লোক সঙ্গীতের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে পড়েন। বিভিন্ন বাদ্যযন্ত্র বাজাতে শেখেন। মাত্র ১৭ টাকা দিয়ে তৈরি করেন নিজের প্রথম একক নাটক XYZ। এই নাটক গোটা ভারতে ৫০০ এর বেশী শো সম্পূর্ন করেছে।

ছোট্ট গ্রাম থেকে টলিউডে পাড়ি, মঞ্চ থেকে পর্দা সর্বত্রই মন জয় করেছেন প্রশান্ত সূত্রধর

তবে এতকিছুর মাঝেও থামেনি অভিনয় নিয়ে পড়াশোনা। স্কলারশিপ নিয়ে রাষ্ট্রীয় নাট্য বিদ্যালয়ে অভিনয় নিয়ে পড়াশোনা করার সুযোগ পান। এখানে পড়াশোনা শেষ হওয়ার পরেই স্বাধীনভাবে নাটকের কাজ করতে ঝাঁপিয়ে পড়েন। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আমন্ত্রণ পান থিয়েটার পরিচালনা ও তত্ত্বাবধান করার। অল্প খরচে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের ছেলে-মেয়ের নিয়ে থিয়েটার করেন।

ছোট্ট গ্রাম থেকে টলিউডে পাড়ি, মঞ্চ থেকে পর্দা সর্বত্রই মন জয় করেছেন প্রশান্ত সূত্রধর

তবে ২০১৯ এ পূর্ণ দৈর্ঘ্যের বাংলা ছবি ‘জগাখিচুড়ী’-তে অভিনয়ের সুযোগ পান। জনপ্রিয় অভিনেতাদের সাথে তিনি একই পর্দায় অভিনয় করেন। এবছর এই ছবি MX Player এ মুক্তি পেয়েছে। এই ছবিতে তার অপূর্ব অভিনয় দর্শকদের মনে আলাদা করে জায়গা করে নেন। তার জনপ্রিয়তা দেশের গন্ডি ছাড়িয়ে বাংলাদেশে পৌঁছে গেছে।

ছোট্ট গ্রাম থেকে টলিউডে পাড়ি, মঞ্চ থেকে পর্দা সর্বত্রই মন জয় করেছেন প্রশান্ত সূত্রধর

‘ভূতের ভবিষ্যৎ’, ‘ওপেন টি বায়োস্কোপ’, ‘অভিশপ্ত নাইটি’ এর মতন ছবিগুলোতে স্ক্রিপ্ট রাইটার ও সহ অভিনেতার কাজ করেছিলেন দেব কুমার রায়। তার পরিচালিত নতুন ছবি ‘তরুলতার ভূত’-এ প্রশান্ত ইন্দ্রনীল সেনগুপ্ত, রাহুল দেব বোস, ইশা সাহা, বাসব দত্তা চ্যাটার্জীর মতো অভিনেতার সাথে স্ক্রিন ভাগ করে নিয়েছেন।

ছোট্ট গ্রাম থেকে টলিউডে পাড়ি, মঞ্চ থেকে পর্দা সর্বত্রই মন জয় করেছেন প্রশান্ত সূত্রধর

তবে শুধু থিয়েটার বা অভিনয় নয় বাঙলা ব্যান্ড চন্দ্রবিন্দু পরিচালিত ছবির একটি গানে গলাও মিলিয়েছেন।

ছোট্ট গ্রাম থেকে টলিউডে পাড়ি, মঞ্চ থেকে পর্দা সর্বত্রই মন জয় করেছেন প্রশান্ত সূত্রধর

সম্প্রতি অঙ্কুশ হাজরা ও শুভশ্রী গাঙ্গুলীর সাথে বাণিজ্যিক ছবি ‘গুরুজি’-তে একটি প্রমিসিং কমিক চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে প্রশান্তকে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে এই দুটি ছবি পূজোতেই হলে মুক্তি পাবে।

ছোট্ট গ্রাম থেকে টলিউডে পাড়ি, মঞ্চ থেকে পর্দা সর্বত্রই মন জয় করেছেন প্রশান্ত সূত্রধর

তবে ‘মন মানে না’ তার অভিনীত প্রথম ধারাবাহিক। এই ধারাবাহিকে অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি সঞ্চয় করছেন অনেক নতুন অভিজ্ঞতা। পাশাপাশি ‘ভোলা’-র চরিত্রে অভিনয় করাটা তার কাছে যথেষ্ট চ্যালেঞ্জিং। এই ধরনের চরিত্রের জন্য তিনি রীতিমতো মানসিকভাবে নিজেকে তৈরি করেছেন।

ছোট্ট গ্রাম থেকে টলিউডে পাড়ি, মঞ্চ থেকে পর্দা সর্বত্রই মন জয় করেছেন প্রশান্ত সূত্রধর

পাশাপাশি তিনি নিজের আরও বেশ কিছু নতুন প্রজেক্টের কথা জানান। ভবিষ্যতে তিনি অভিনয়ের মাধ্যমেই ব্যস্ত থাকতে চান। পর্দায় অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি থিয়েটারেও অভিনয় করে যাবেন।

Related Articles

Back to top button