বিনোদন

সারেগামাপা’তে বিজয়ী হওয়ার পর জুটেছে অপমান, পুরস্কার ফেরানোর ইচ্ছাপ্রকাশ করলেন অর্কদীপ

স্যোশাল মিডিয়া একদিনের মধ্যেই যে কাউকে সেলিব্রিটি বানিয়ে দিতে পারে আবার কাউকেই সমাজের চোখে খারাপ করে দিতে পারে। সেরকমই আলোচনার শীর্ষে উঠে এসেছেন অর্কদীপ। বাংলার অন্যতম জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো সা রে গা মা পা-র ফলাফল নিয়ে বেশ উত্তেজিত হয়ে পড়েছেন নেটিজেনরা। সবাই ভেবেছিলেন অনুষ্কা অথবা নীহারিকা-র মধ্যে কেউ প্রথম হবেন। তবে সেই আশায় জল ঢেলে লোক সঙ্গীত গেয়ে প্রথম হয়েছেন অর্কদীপ।

তাতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন নেটিজেনরা। তারা কটূ ভাষায় আক্রমণ করেছেন অর্কদীপকে। তার বাবা-মা সবাইকে তুলে খারাপ কথা বলেছেন নেটিজেনরা। অন্যদিকে বিচারকদের দিকেও ধেয়ে এসেছে একের পর এক তীর্যক মন্তব্য। টাকা খাওয়ার অভিযোগ উঠেছে বিচারকদের বিরুদ্ধে। তবে নেটিজেনদের তোলা সবরকম অভিযোগের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন ইমন, লোপামুদ্রা, রূপঙ্কর, জয় সরকার প্রত্যেকেই।

একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া স্বাক্ষাতকারে অর্কদীপ বলেছেন যে খ্যাতির সাথে সাথে তার অনেক কুখ্যাতিও জুটেছে। তিনি বলেন যে একটা সময় ক্রিকেট খেলতে খুব পছন্দ করতেন দাবা খেলতেও ভালোবাসতেন। একসময় ইচ্ছে ছিল দাবাড়ু হওয়ার। তারপর তার গানের প্রতি ভালোবাসা জন্মায়। তার হোক গানের একটি ব্যান্ডও আছে। তার ব্যান্ডের নাম হোক ডায়রি। জাতীয় ও আন্তর্জাতিক স্তরে রিয়েলিটি শো-তেও তিনি অংশ নিয়েছিলেন।

প্রথমে তিনি রসায়ন নিয়ে স্নাতক হন। রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লোক সঙ্গীতে স্নাতকোত্তর করেন। এরপরেও তিনি এক জনপ্রিয় সংবাদ মাধ্যমের কাছে প্রশ্ন করেন লোক সঙ্গীত গেয়ে সেরা হওয়া যায় না? তারপর তিনি এও বলেন যে তিনি সা রে গা মা পা-র পুরস্কার ফিরিয়ে দিতেন।

Back to top button