বিনোদন

‘ভাবিনি আমি একা হয়ে যাবো’, প্রিয়জনকে হারিয়ে ভেঙে পড়লেন ‘দিদি নং ১’-এর রচনা ব্যানার্জী

বর্তমানে বাংলার জনপ্রিয় রিয়ালিটি শো গুলির মধ্যে দিদি নাম্বার ওয়ান (Didi No 1) হলো অন্যতম। এই দিদি নাম্বার ওয়ানের দৌলতেই অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জি (Rachana Banerjee) পৌঁছে গিয়েছেন দর্শকদের খুব কাছাকাছি। শহরের আনাচে কানাচের মানুষেরা দিদি রচনা ব্যানার্জীর কাছে এসে নিজেদের সুখ-দুঃখের গল্প সবার সাথে ভাগ করে নেন। সেই সুখ দুঃখের কথা শুনে নিমিষেই চোখ বিহ্বল হয়ে ওঠেন সকলের প্রিয় দিদি রচনা ব্যানার্জীর। তবে এবার সেই দিদিরই জীবনে নেমে এলো গভীর অন্ধকার! গত ১৬ ই নভেম্বর অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জীর বাবা রবীন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায় সকলকে ছেড়ে পাড়ি দিয়েছেন অজানার উদ্দেশ্যে। নিজের বাবাকে হারিয়ে কার্যত ভেঙে পড়েছেন অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জি।

তবে পিতৃবিয়োগের তিনদিন পর থেকেই অনুরাগীদের সঙ্গে সেই যন্ত্রণা ভাগ করে নিতে দেখা গিয়েছে অভিনেত্রীকে। সকলের সামনে সামাজিক মাধ্যেমের মধ্যে দিয়ে অভিনেত্রী জানিয়েছেন তিনি বাবাকে ছাড়া সম্পূর্ণ একা। অভিনেত্রীকে দেখা গিয়েছে নিজের বাবার সঙ্গে একটি ছবি সামাজিক মাধ্যমে তুলে ধরতে।

সেই ছবি সামাজিক মাধ্যমের দেওয়ালের তুলে ধরে অভিনেত্রী লিখেছেন, “আমার বাপি…ভাবিনি তুমি কখনো আমাকে ছেড়ে চলে যাবে। ভাবিনি আমি একা হয়ে যাব। এখনো এত কটা বছর তোমাকে ছাড়া থাকতে হবে। তবে তোমার আশীর্বাদ আমাদের সঙ্গে আছে আমি জানি। থাকবো…থাকতে হবে। তুমি ভালো থেকো বাপি”।

বহুদিন ধরেই শারীরিক অসুবিধায় ভুগছিলেন অভিনেত্রীর বাবা রবীন্দ্রনাথ ব্যানার্জি। শেষ অব্দি ৮৪ বছর বয়সে ১৬ ই নভেম্বর শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন তিনি। অভিনেত্রী রচনা ব্যানার্জীর বাবা ছিলেন অভিনেত্রীর কেরিয়ারের একমাত্র পিলার অফ স্ট্রেঙ্থ। মৃত্যুর আগে পর্যন্ত অভিনেত্রীর পাশে ঢালের মতো দাঁড়িয়েছিলেন তাঁর বাবা। বাইপাসের ধারে অভিজাত আবাসনে অভিনেত্রীর সঙ্গে থাকতেন তাঁর বাবা। এদিন অভিনেত্রী পোস্টে তাঁর অনুরাগীদেরও দেখা গিয়েছে প্রাণভরা সমবেদনা জানাতে।

Related Articles

Back to top button