বিনোদন

নিখিলকে ছেড়ে যশের সাথে ঘনিষ্ঠতা, ফাটল ধরল নুসরত-মিমির বন্ধুত্বের সম্পর্কে!

কথায় আছে নায়িকারা কখনও বন্ধু হয় না। তবে এই ধারণাকে ভুল‌ প্রমাণ করে দিয়েছিল টলিউডের মিমি নুসরাতের বন্ধুত্ব। তাদেরকে সবসময় একসাথে দেখা যেত। তবে গত কয়েকমাসে পাল্টেছে সব সমীকরণ। কয়েকদিন আগেই শ্রাবন্তী, তনুশ্রীর সাথে ঘনিষ্ঠতা বেড়েছে নুসরাতের। নিখিলের সাথে সম্পর্কের ভাঙন ও যশের সাথে নুসরাতের ঘনিষ্ঠতা বাড়ার পরেই যেন বেড়েছে মিমি ও নুসরাতের সম্পর্কে ফাটল। বর্তমানে মিমি চক্রবর্তীর কাছের বন্ধু হয়ে উঠেছেন অভিনেত্রী পার্নো মিত্র ও অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়।

যেসময়ে নুসরাতের লিভ-ইন রিলেশনশিপ তুরস্কে উদযাপন করা হচ্ছিল। সেই সময়ে টলিউডের একমাত্র বন্ধু হিসেবে সেখানে মিমি চক্রবর্তী উপস্থিত ছিলেন। একা হাতে সবটা দেখেছিলেন। নুসরাতের সাথে নাচতেও দেখা গেছিল তাকে। তবে এখন স্যোশাল মিডিয়ায় চাপা গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে মিমি ও নুসরাতের সম্পর্কের মধ্যে ধরেছে ফাটল।

মঙ্গলবার কসবার ভ্যাক্সিনেসন সেন্টারে উপস্থিত ছিলেন অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। সেখানে তিনি ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নেন। সেখানেই তাকে নুসরাতকে নিয়ে প্রশ্ন করা হলে। একেবারে এড়িয়ে যান তিনি। সাংবাদিককে তিনি বলেন ‘আজ অন্য বিষয় নিয়ে আলোচনা করছি, অন্য সময়ে এই বিষয়ে কথা বলব’। তাকে যখন নুসরাতের জীবন জুড়ে ছড়িয়ে থাকে বিতর্ক নিয়ে প্রশ্ন করা হয় তার উত্তরে তিনি বলেন ‘নায়িকার জীবন কখনোই ব্যক্তিগত হয় না, সবসময়ই তারা লাইমলাইটে থাকেন’। অবশ্য এর আগে কখনও তাকে নুসরাতের বিষয়ে এড়িয়ে যেতে দেখা যায়নি।

শোনা যাচ্ছে এসওএস কোলকাতার শুটিং এর পর থেকেই বদলে গেছে সবটা। আবার অনেকেই মনে করেন অভিনেতা যশ দাশগুপ্তের জন্য ভেঙ্গেছে তাদের বন্ধুত্ব। তবে নুসরাতের মা হওয়া নিয়ে কোনো শুভেচ্ছা বার্তা দিতে দেখা যায়নি মিমিকে। আগের মতন হ্যাং আউটও করেন না তারা‌। তবে কি সত্যি ভেঙ্গে গেল নুসরাত মিমির বন্ধুত্ব। বাকিটা তো সময় বলবে।

Related Articles

Back to top button