বিনোদন

”খেলা হবে আর খেলা শেষ হবে”, নতুন শ্লোগান দিয়ে ভোটের ময়দানে সাংসদ-অভিনেতা দেব

সামনেই ভোট এই সময় হাত পা গুটিয়ে বসে থাকা তো আর যায় না। যে যার দল কাজ শুরু করে দিয়েছে নিজের মতো করে। দুই দলের পার্থী আছে বেশির ভাগই সেলিব্রিটি। ভোট বলে কথা স্টারডমের কথা ভুলে গিয়ে সাধারন মানুষের খুব কাছে গিয়ে ধরা দিচ্ছেন তারা।

 

বাঁকুড়ার তৃনমূল পার্থী জ্যোৎস্না মান্ডীর সমর্থনে ভোট প্রচারের কাজে নামলেন অভিনেতা দেব। বিশাল জনসভায় মঞ্চে উঠে তিনি বলেন, “আজ খেলা চলছে ধর্ম নিয়ে। কে হিন্দু কে মুসলিম, তা নিয়ে ভোট ভাগ করা হচ্ছে। আমাদের দল ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করে না। আমাদের দল মানুষকে শান্তিতে রাখার রাজনীতি করে। আমাদের দলে ধর্মের কোনো স্থান নেই। মানুষের উন্নয়নের জন্য আমাদের দল রাজনীতি করে।”

 

বাংলার দরজায় কড়া নাড়ছে নির্বাচন। ভোট প্রচারের ময়দানে নেমেছেন তাবড় তাবড় রাজনৈতিক নেতা, সাংসদ থেকে অভিনেতা, অভিনেত্রী সকলেই। তেমনি বেতিক্রম ঘটালের দু বার এর নির্বাচিত সাংসদ (তৃনমূল কংগ্রেস) দীপক অধিকারী। সারা বাংলা তাকে চেনে দেব নামে। প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হওয়ার কিছুদিন পর থেকেই জেলায় জেলায় প্রচারে বেরিয়েছেন এই খ্যাতনামা অভিনেতা তথা সাংসদ। বাঁকুড়ার রানিবাঁধ এর তৃণমূল প্রার্থী জোৎস্না মান্ডির হয়ে এইদিনে প্রচারে এসে যথারীতি ময়দান কাপালেন দেব।নিজের বক্তব্যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভুয়সী প্রশংসা করেন।

 

গত দশ বছরে তার দল কি কি কাজ করেছে সেই ব্যাখ্যা দেন তিনি। কাজ দেখে ভোট দেওয়ার অনুরোধ করেন সবাইকে। তারপরই ‘খেলা হবে’ স্লোগান এর প্রসঙ্গ তুলে জানান , এখন অনেকেই এই স্লোগান দিচ্ছে। তিনি বলেন, তিনি বিশেষ রাজনীতি বোঝেন না শুধু মানুষের জন্যে কিভাবে কাজ করা যায় সেটা বোঝেন। তিনি এও বলেন, বাংলার মানুষ যাতে ভালো থাকে, সুরক্ষিত থাকে সেই খেলা বোঝেন।

 

দেব আরও বলেন, “এখন খেলা হবে আর খেলা শেষ হবে এই নিয়ে রাজনীতি চলছে। আমি বুঝতে পারছি না কারণ আমি একদমই রাজনীতির বাইরে। আমার মনে হয় যাঁরা মানুষকে ভালোবাসবে, ভালো রাখবে, তাঁদের উন্নয়নের পথে নিয়ে যাবে তাঁদেরই খেলা হবে। আর যাঁরা ভোট নেবে বলে ধর্ম নিয়ে রাজনীতি করে ও হিন্দু-মুসলিম ভাগ করে তাঁদের খেলা শেষ হবে।” ভোট প্রচারে “খেলা হবে আর খেলা শেষ হবে” এই দুই শ্লোগান কে হাতিয়ার করে ভোট প্রচারে নেমেছেন তিনি। বসে থাকেননি ঠান্ডা ঘরে পৌঁছে গেছেন জঙ্গল মহলের মা বোনেদের কাছেও মমতা দির দূত হয়ে।

Related Articles

Back to top button