বিনোদন

চেহারা নিয়ে উঠতে বসতে শুনতে হয় খোঁটা, অবশেষে নেটিজেনদের যোগ্য জবাব দিলেন মধুমিতা

জয়দীপ মুখোপাধ্যায়ের পরিচালনায় নতুন রূপে দেখা দিতে চলেছেন অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার। অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার (Madhumita Sarcar) এবং অভিনেতা রাজদীপ গুপ্ত (Rajdeep Gupta) হইচইয়ের (Hoichoi) আসন্ন একটি ছবিতে জুটি বাঁধতে চলেছেন। সুকান্ত বন্দ্যোপাধ্যায়ের গল্প ‘বটতলা’ অবলম্বনে তৈরি হতে চলেছে ‘উত্তরণ’ ছবি। এক গৃহবধূর চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে অভিনেত্রীকে। একটি এমএমএস (MMS) কিভাবে একটি মেয়ের জীবন পুরোপুরি তছনছ করে দিতে পারে সেই গল্পই বলবে মধুমিতা সরকারের আসন্ন ছবি উত্তরণ। ‘দোষারোপের সময় পুরুষের আঙুল সব সময় নারীর দিকেই ঘুরে যায়।’ কিছু হলেই গোটা সমাজ পুরুষ নয় বরং মেয়েদেরকেই আসল দোষী ভাবেন।

কাজের ফাঁকে অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার সংবাদমাধ্যমকে বলেছেন, “একটি ছেলে এবং একটি মেয়ের যদি কোনও ভিডিয়ো ছড়িয়ে পড়ে, সে ক্ষেত্রে মেয়েটির দোষ থাকুক বা না থাকুক, সমাজ তাকেই দোষারোপ করবে। মেয়েরাও বোধ হয় সেটা বুঝে গিয়েছে। চিরাচরিত ধারণাকে ভেঙে অন্যায়ের প্রতিবাদ করার বার্তা দেবে এই ছবি।”

মধুমিতার আসন্ন ছবিতে অভিনেত্রীর চরিত্রের নাম হবে পর্ণা। তাঁর স্বামীর চরিত্রে অভিনয় করবেন অভিনেতা রাজদীপ গুপ্ত। একদল খোলা চুল, একেবারে সাদামাটা পোশাক, কপালে টিপ এবং সিঁথির সিঁদুরে দেখা মিলবে অভিনেত্রী মধুমিতা সরকারের। আপাতত যে তিনটি ছবিতে অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার অভিনয় করেছেন সেগুলি একেবারে ভিন্ন স্বাদের চরিত্র ছিল। তবে এটা একেবারেই ভিন্ন স্বাদের। এই চরিত্রে অভিনয় করার জন্য অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার কি আলাদা ভাবে কোন রকম প্রস্তুতি নিয়েছিলেন! এ প্রসঙ্গে অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার কথা বলতে গিয়ে বলেন, “আমি যখনই নতুন কোনও চরিত্র করি, আমার আগের করা চরিত্রগুলির ছাপ মানুষের মন থেকে মুছে যায়। যে ধারাবাহিকগুলো করেছি, সেগুলিতেও একটি চরিত্র আরেকটি চরিত্রের থেকে একদম আলাদা ছিল।”

সানন্দা টিভির ‘সবিনয় নিবেদন’-এর মাধ্যমে অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার (Madhumita Sarcar) পা রেখেছিলেন গ্ল্যামার ওয়ার্ল্ডে। তারপরে স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ‘বোঝেনা সে বোঝেনা’-এর প্রবল সাফল্যের পর অভিনেত্রীকে আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। সেই ধারাবাহিক শেষ হয়ে গেলেও আজও তিনি সকলের কাছে পরিচিত পাখি (‘বোঝেনা সে বোঝেনা’ ধারাবাহিকে অভিনীত চরিত্রের নাম) নামেই পরিচিত। এরপরেও ‘কেয়ার করি না’, ‘বোঝে না সে বোঝে না’, ‘কুসুমদোলা’-র মত বহু ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন।

ছোটপর্দা থেকে বড় পর্দার উত্তরণের প্রসঙ্গ টেনে অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার বলেছেন, “ধারাবাহিক থেকে যখন ছবিতে এলাম তখন দর্শক আমাকে ঝাঁ-চকচকে এক অবতারে দেখলেন। এখন তাঁরা ভাবতেই পারেন, আমি গৃহবধূর চরিত্র করতে পারব কি না। কিন্তু সেটাই আমার কাজ।” অন্যদিকে বর্তমানে প্রত্যেকদিন সামাজিক মাধ্যমের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের কটাক্ষের মুখোমুখি হতে হয় অভিনেত্রীকে। পর্দার জীবন খানিকটা মিলে মিশে গিয়েছে বললেই চলে। তবে অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার কখনোই কোনো রকম কুমন্তব্যকে প্রশ্রয় দেননি। এই প্রসঙ্গে অভিনেত্রী সংযোজন, “আমি জানি, কী ধরনের পোশাক পরি। শালীন-অশালীনের পার্থক্যও বুঝি। যাঁরা আমাকে খারাপ কথা বলেন, তাঁরা নিজেরা কতটা ঠিক বা ভুল সেই দিকটিও তাঁদের ভেবে দেখা উচিত। ‘উত্তরণ’-ও কিন্তু সেই বার্তাই দেবে।”

Related Articles

Back to top button