বিনোদন

রূপে লক্ষ্মী গুণে সরস্বতী, সৌন্দর্যে টলিউড নায়িকাদের হার মানাবে মিঠুন চক্রবর্তীর মেয়ে, রইল ছবি

আশির দশকের বলিউড অভিনেতাদের কথা বললে প্রথমেই যার নাম আসবে, তিনি হলেন মিঠুন চক্রবর্তী। ভারতীয় সিনেমার প্রথম সুপারস্টারও বলা হয় তাঁকে। প্রকৃতপক্ষেই একজন সুপারস্টারের মতো দাপিয়ে বেড়িয়েছেন অভিনয় জগতে। হিন্দি, বাংলা সহ দেশের প্রায় সমস্ত ভাষার সিনেমাতেই তার তুখোড় অভিনয় মন জয় করেছে দর্শকদের। বলিউডে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর মিঠুন বিয়ে করেন অভিনেত্রী যোগিতা বালিকে। এহেন মিঠুন চক্রবর্তীর চার সন্তান, যার মধ্যে তিন পুত্র এবং এক কন্যা।

কিন্তু অভিনেতার এই কন্যা সন্তান পাওয়ার পিছনে আছে এক গল্প। বহু বছর আগে কলকাতার এক ডাস্টবিনের পাশে এক শিশু কন্যাকে পড়ে থাকতে দেখা যায়। খবর যায় পুলিশের কাছে। এক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের মাধ্যমে উদ্ধার করা হয় শিশুটিকে। খবরের কাগজে এই খবরটি পড়েন অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী। অভিনেতার তখন তিন পুত্র সন্তান। কিন্তু খুবই ইচ্ছা ছিল এক কন্যা সন্তানের। এই খবর পাওয়ার পর তিনি যোগাযোগ করেন ওই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সঙ্গে। মিঠুন এবং তাঁর স্ত্রী দত্তক নেন মা বাবার ফেলে যাওয়া কন্যা সন্তানটিকে। তার নাম রাখেন দিশানী চক্রবর্তী। বাড়িতে নিয়ে আসার পর থেকেই সকলের খুব কাছের হয়ে উঠেছিল দিশানী। বাবা, মা এবং তিন দাদার খুব প্রিয় ছিল সে।

 

 

বর্তমানে অনেকটাই বড় হয়েছেন দিশানী। নিউ ইয়র্ক ফিল্ম অ্যাকাডেমি থেকে ফিল্ম স্টাডি নিয়ে পড়াশোনা করে নিজেকে অভিনয়ের জন্য তৈরি করেছেন তিনি। কোনো বড় ছবিতে অভিনয়ের সুযোগ না পেলেও ইতিমধ্যেই বড়দা উশমে চক্রবর্তী পরিচালিত হোলি স্মোক ছবির মাধ্যমে অভিনয়ের হাতেখড়ি হয়েছে দিশানীর। ২০১৭ সালে ডেবিউ করার পর এখনও পর্যন্ত বেশ কয়েকটি শর্ট ফিল্মে অভিনয় করেছেন তিনি।

 

ছোট থেকেই লাইমলাইট থেকে অনেকটাই দূরে থাকতে পছন্দ করতেন দিশানী। কিন্তু বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় খুবই সক্রিয় তিনি। প্রায়শই তার ভক্তদের জন্য ছবি, ভিডিও পোস্ট করতে থাকেন ইনস্টাগ্রামে। ছোট থেকেই বিটাউনের তাবড় তারকা, পরিচালকদের সাথে পরিচিত দিশানী। তাই খুব শীঘ্র তাকে কোনো বড় ছবিতে দেখা গেলেও অবাক হওয়ার কিছু নেই।

Related Articles

Back to top button