বিনোদন

ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয়ে মানা, ভালো অভিনেত্রী হওয়া সত্বেও মাধুরীর কাছে পিছিয়েই থাকলেন জুহি চাওলা

বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী হলেন জুহি চাওলা। কুড়ি বছর ধরে বলিউডে শুধুমাত্র নিজের অভিনয় দক্ষতার জন্যেই নয় পাশাপাশি নিজের মন ভালো করা হাসির মাধ্যমে মন জয় করে নিয়েছিলেন সবার। তার সৌন্দর্যের পাশাপাশি মুখের মধ্যে লুকিয়ে থাকা কোমলতায় দর্শকরা বারবার মুগ্ধ হয়েছেন। তিনি যখন সাফল্যের চূড়ায় অবস্থান করছেন সেই সময় তার সাথে বলিউডের প্রথম সারির পরিচালক ও প্রযোজকরা কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেন। তবে তিনি কখনোই চেষ্টা করেননি এক নম্বর অভিনেত্রী হওয়ার। শুধুমাত্র নিজের কাজকে ভালোবেসে গেছেন তিনি।

১৯৮৪ সালে জুহি মিস ইন্ডিয়া হন। তারপর তিনি পা রাখেন রূপোলী পর্দায়। ১৯৮৬ সালে সালতনাত ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি বলিউডে নিজের যাত্রা শুরু করেন। এরপর তিনি ধর্মেন্দ্র, সানি দেওলের মতন অভিনেতাদের সাথে জুটি বেঁধে একের পর এক ছবিতে অভিনয় করেন। তার প্রথম ছবির দুই বছর পর আমির খানের সাথে জুটি বেঁধে ‘কয়ামত সে কয়ামত তক’ ছবিতে অভিনয় করার পরেই বলিউডের বহু নায়করা তার সাথে কাজ করার জন্য আগ্রহী হয়ে ওঠেন।

ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয়ে মানা, ভালো অভিনেত্রী হওয়া সত্বেও মাধুরীর কাছে পিছিয়েই থাকলেন জুহি চাওলা

নিজের অভিনয় জীবনের শুরু থেকেই নিজের পছন্দ ও মতকেই প্রাধান্য দিয়েছেন। নিজের ইচ্ছা মতন ছবিতে অভিনয় করতে রাজি হয়েছেন তিনি। এমনকি ইন্ডাস্ট্রিতে প্রতিষ্ঠিত হয়ে যাওয়ার পরেও নতুন আসা নায়কের বিপরীতে অভিনয় করতে দ্বিধাবোধ করেননি। শাহরুখ ও আমিরের সাথে তার জুটি ছিল বেশ হিট। তবে সালমান খানকে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। শোনা যায় তার এই প্রত্যাখান মনে রেখেছিলেন বলিউডের ভাইজান। তাই তার সাথে কখনোই জুটি বেঁধে অভিনয় করেননি সালমান খান।

জুহি সবসময় ছবির চিত্রনাট্যের উপর বিশ্বাস করতেন। অবশ্য এরফল ভোগ করতে হয়েছিল তাকে। ‘কুরবান’ ছবিতে অভিনয়ের ডাক পেলেও তা ফিরিয়ে দিয়েছিলেন তিনি। অন্যদিকে তার পছন্দের চিত্রনাট্য ‘লভ লভ লভ’, ‘গুঞ্জ’ ও ‘কাফিলা’ মুখ থুবড়ে পড়ে বক্স অফিসে। সেইসময়ে বলিউডে যখন বৃষ্টিতে ভিজে নায়িকাদের নাচ হিট। শ্রীদেবী, কাজল, করিনা-র মতন জনপ্রিয় নায়িকারাও যখন এই ট্রেন্ডে গা ভাসিয়েছেন। এমনকি কেরিয়ারের শুরুতে মাধুরী ‘দয়াবান’ ছবিতে বিনোদ খন্নার সাথে ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করেছিলেন। তবে জুহি কোনোদিন এধরনের দৃশ্যে অভিনয় করতে রাজি হননি। তাই তার হাত থেকে অনেক বড় প্রোজেক্ট হাত থেকে চলে যায়।

ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয়ে মানা, ভালো অভিনেত্রী হওয়া সত্বেও মাধুরীর কাছে পিছিয়েই থাকলেন জুহি চাওলা

একটা সময় বিনোদন জগতে গসিপের মূল কারন ছিল মাধুরী ও জুহির দ্বন্ধ। বক্স অফিস সাফল্যের নিরিখে মাধুরী এগিয়ে থাকলেও। মাধুরীর সাথে সঞ্জয় দত্ত ও অজয় জাদেজার সাথে নাম জড়িয়ে কেরিয়ার ব্যহত হয়। কিন্তু তখনও তিনি এক নম্বর নায়িকার জায়গা দখল করতে যাননি।

ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয়ে মানা, ভালো অভিনেত্রী হওয়া সত্বেও মাধুরীর কাছে পিছিয়েই থাকলেন জুহি চাওলা

১৯৯৫ সালে শিল্পপতি জয় মেটার সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন অভিনেত্রী। ঘরোয়া অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তিনি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। বিয়ে করার পর থেকেই অভিনয় জগত থেকে সরে আসেন অভিনেত্রী। তার চার বছর পর এক প্রবাসী চিকিৎসককে বিয়ে করে নিয়ে প্রবাসী হয়ে যান। তিনিও অভিনয় জগত থেকে সরে যান। সেইসময় ইন্ডাস্ট্রিতে বিবাহিত নায়িকাদের জায়গা ছিল না। পরে অবশ্য তা বদলে যায়। করিনা থেকে দীপিকা সবাই বিয়ের পর চুটিয়ে অভিনয় করছেন।

ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয়ে মানা, ভালো অভিনেত্রী হওয়া সত্বেও মাধুরীর কাছে পিছিয়েই থাকলেন জুহি চাওলা

‘ইশক’ ছবির সেটে আমির খানের রসিকতা পছন্দ না হওয়ায় তার এবং আমির খানের মধ্যে সম্পর্ক খারাপ হয়ে যায়। তাই তাদের আর পর্দায় একসঙ্গে অভিনয় করতে দেখা যায়নি। তবে শাহরুখের সাথে তার সম্পর্ক বরাবরই ভালো ছিল। শাহরুখের কেরিয়ারের শুরুতে জুহি নায়িকা হলেও। পরে শাহরুখের ছবিতে কাজল বেশি প্রাধান্য পায়। অন্যদিকে বক্স অফিসে সাফল্যের মুখ দেখেনি ‘ওয়ান টু কা ফোর’ ও ‘ফির ভি দিল হে হিন্দুস্তানি’।

ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয়ে মানা, ভালো অভিনেত্রী হওয়া সত্বেও মাধুরীর কাছে পিছিয়েই থাকলেন জুহি চাওলা

তিনি নিজের স্বামী সন্তানকে নিয়ে সুখেই সংসার করছেন। তার মেয়ে জাহ্নবী লেখিকা হতে চায়। অনেকেই মনে করেন তিনি হয়তো বলিউডের সর্বোচ্চ উচ্চতায় পৌঁছাতে না পারলেও। তবে তিনি সবসময় খুশি থেকেছেন।

Related Articles

Back to top button