বিনোদন

অভিনয়ের পাশাপাশি দুর্দান্ত রান্না করে সবাইকে চমকে দিলেন ভুতু

ছোটবেলায় ভূতের গল্প শুনে ভয় পাননি এরকম দর্শকের সংখ্যা হয় তো একেবারেই নেই। দর্শকেরা বেশিরভাগই কমবেশি কেউ-না-কেউ ভুতের প্রতি মনে মনে ভয় পুষে রাখেন। তবে বেশ কয়েক বছর আগে এক ভূতের দেখা পাওয়া গিয়েছিল জি বাংলার পর্দায়। যাকে দেখে বিন্দুমাত্র ভয় পাননি দর্শকেরা। বরং সেই ছোট্ট খুদেকে ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছিলেন। এমনকি কিছু বছর আগে ফিরে গেলে দেখা যাবে সেই সময়ে দর্শকেরা ঘড়ির দিকে মুখ করে অধীর আগ্রহে বসে থাকতেন কখন তারা তাদের প্রিয় ভূতকে দেখতে পাবেন। এখানে সবার প্রিয় ভূত অর্থাৎ ভুতুর (Bhooto) কথাই বলা হচ্ছে।

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক ভুতু এক সময় এক দর্শকের মণিকোঠায় স্থান করে নিয়েছিল। ধারাবাহিকে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন এক রত্তি মিষ্টি মেয়ে। যার নাম আর্শিয়া মুখার্জি (Arshiya Mukherjee)। সেই মিষ্টি ভূত যেমন দর্শকের মন জয় করেছিল অভিনয় দ্বারা ঠিক তেমন আরো একবার দর্শকের মন জয় করে নিল তার মিষ্টি হাতের রান্না। অভিনয়ের পাশাপাশি পড়াশোনা এবং পড়াশোনার পাশাপাশি রান্নাতেও সমান দক্ষতার পরিচয় দিয়েছে সেই একরত্তি মেয়ে।

খুদে অভিনেত্রীর সোশ্যাল মিডিয়ায় চোখ রাখলে দেখা যাচ্ছে স্কুল ড্রেসের উপরে রান্নার অ্যাপ্রন পরে এবং হাতের ট্রে নিয়ে দারিয়ে রয়েছে সেই মিষ্টি ভুতু। এছাড়াও চোখে রয়েছে চশমা। হাতে ধরা ট্রের ওপর সাজানো রয়েছে দুটি খাবারের পদ। ছবিতে ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, “আইআইএইচ এম রিজিওনাল সেমিফাইনালের জন্য নিজে হাতে এই দুটি রেসিপি তৈরি করেছি আমি।”

সেই দিনের সেই ছোট্ট ভুতু আজ এত বড় হয়ে গেছে দেখে দর্শকের একাংশ বেশ অবাক হয়েছেন। এছাড়াও তার মধ্যে অভিনয়ের পাশাপাশি যে রান্নার গুণও আছে তা জানা ছিল না দর্শকদের তাই দেখে বেশ বিস্ময় হয়েছেন দর্শকেরা। রান্নার পারদর্শিতায় মুগ্ধ নেট নাগরিক। এছাড়াও খুদে অভিনেত্রীর অনুরাগীরা তাকে ভবিষ্যতে আরও এগিয়ে যাওয়ার জন্য শুভেচ্ছা বার্তা জানিয়েছেন।

Related Articles

Back to top button