বিনোদন

বিয়ের ২০ বছর প্রসেনজিৎ-রচনার সম্পর্কে গোপন কথা ফাঁস করলেন অভিনেত্রী অর্পিতা চ্যাটার্জী

কিছুদিন আগেই জি বাংলার জনপ্রিয় গেম শো ‘দিদি নাম্বার ওয়ান’-এর মঞ্চে উপস্থিত হয়েছিলেন অভিনেত্রী অর্পিতা চট্টোপাধ্যায় (Arpita Chatterjee)। দীর্ঘ সময়ের ব্যবধানে তাঁকে আবার পর্দায় দেখতে পেয়েছেন দর্শকরা। স্বাভাবিকভাবেই দর্শকমহলে ওই পর্ব নিয়ে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছিল।

এই শোয়ে খেলার পাশাপাশি সঞ্চালিকা রচনা ব্যানার্জীর (Rachna Banerjee) প্রশ্নে অংশগ্রহণকারীদের ব্যক্তিগত জীবনের কথাও উঠে আসে। তবে এই পর্বে ঘটলো উল্টো ঘটনা। প্রতিযোগী অর্পিতা প্রকাশ করলেন সঞ্চালিকা রচনার সম্পর্কে কিছু তথ্য। অর্পিতার কথায় জানা গেল প্রসেনজিতের সাথে বিয়ে হওয়ার পর তিনি ব্যক্তিগতভাবে রচনাকে ফোন করে এক অনুরোধ করেছিলেন, প্রাথমিকভাবে রচনা সে অনুরোধ শুনে হতভম্ব হলেও পরে তা মেনে নেন।

কোনো কিছু গোপন না করে অর্পিতা স্পষ্টভাবে শোয়ের মঞ্চে বলেছেন,”একটা কথা আজ বলতে চাই, যেটা আমি আগে কখনও বলিনি। আমার বিয়ের পর সিদ্ধান্ত নিই যে আর কাজ করব না। তখন ইতিমধ্যেই আমার হাতে অনেকগুলো ছবি ছিল। সেইসময় একজন এসে সব পরিচালক-প্রযোজকদের বাঁচিয়ে দিয়েছিলেন, তিনি হলেন দিদি নম্বর ওয়ান।” অর্পিতা আরো জানান, সেই সময়ে রচনা বাইরে প্রচুর কাজ করলেও কলকাতায় নিয়মিত কাজ করতেন না। কিন্তু অর্পিতার ব্যক্তিগতভাবে করা অনুরোধ উপেক্ষা করতে না পেরে রচনা অর্পিতার বদলে সমস্ত সিনেমার কাজে রাজি হয়ে যান। এই প্রসঙ্গে অর্পিতা বলেছেন,”একথা আমি কখনও ভুলবো না।”

অভিনয় জগতের কেরিয়ারের পিক পয়েন্ট অর্থাৎ শিখরে থাকাকালীন অর্পিতা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের (Prosenjit Chattopadhyay) সাথে। বিয়ের পর তিনি অভিনয় জগত থেকে বিরতি গ্রহণ করেছিলেন। সেইসময় প্রসেনজিৎ ও ঋতুপর্ণাও (Rituparna Sengupta) জুটি বেঁধে একসাথে কাজ করা বন্ধ করে দিয়েছিলেন। তখনই উপস্থিত হন রচনা। তারপর থেকেই দর্শকমহল ও ইন্ডাস্ট্রি প্রসেনজিৎ ও রচনা জুটি একসাথে দেখতে পায়। নায়িকা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হন রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়। ‘সবুজ সাথী’, ‘স্নেহের প্রতিদান’, ‘কুরুক্ষেত্র’, ‘মায়ের আঁচল’-সহ ৩৫টি একসাথে কাজ করেন প্রসেনজিৎ ও রচনা। তাঁদের অভিনীত প্রায় প্রত্যেকটি সিনেমাই বক্সঅফিসে দারুণভাবে সফল হয়েছিল।

Related Articles

Back to top button