বিনোদন

গান থেকে অভিনয় এত ট্যালেন্ট থাকা সত্বেও পাননি সুযোগ, খলনায়ক সৌমিত্রর জীবন আস্ত একটা সিনেমা

বাংলা বিনোদন জগতের মধ্যে সবথেকে জনপ্রিয় অভিনেতা হলেন অভিনেতা সৌমিত্র বন্দোপাধ্যায় (Actor Soumitra Banerjee)। একাধিক জনপ্রিয় সিনেমা করে দর্শকদের মন জয় করেছেন তিনি। তবে নায়ক হিসেবে নয়, তিনি খলনায়ক চরিত্রেই অভিনয় করেছেন। আশি ও নব্ব‌ই দশকের সিনেমায় খলনায়ক বলতে তার মুখটাই চোখের সামনে ভাসতো। জনপ্রিয় এই অভিনেতার অভিনয় জীবনের শুরুটা কিন্তু মোটেও মসৃণ ছিল না। অনেক কষ্টে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন তিনি।

জনপ্রিয় এই অভিনেতা কলকাতায় কিন্তু গায়ক হওয়ার জন্য‌ই প্রথম এসেছিলেন। হ্যাঁ প্রথম জীবনে তিনি গায়ক হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন, কিশোর কুমারের গান হুবহু গায়ে দেন তিনি। তবে প্রথম দিকে গান গেয়ে সেভাবে পরিচিতি না পাওয়ায় টাকার জন্য বারে গান গাইতে শুরু করেন তিনি। পরবর্তীকালে তিনি যখন অভিনেতা হিসেবে পরিচিত হয়ে ওঠেন তখন তার স্টেজে ওঠা মাত্রই হইচই পড়ে যেতো।

গান থেকে অভিনয় এত ট্যালেন্ট থাকা সত্বেও পাননি সুযোগ, খলনায়ক সৌমিত্রর জীবন আস্ত একটা সিনেমা
ছবি: সৌমিত্র বন্দোপাধ্যায়

ইংরেজি মিডিয়াম স্কুল থেকে পড়াশোনা করা এই অভিনেতা যখন বার সিঙ্গার হয়েছিলেন তখন তার বাবা-মা সেটা মেনে নিতে পারেননি পরবর্তীতে এই গানের সূত্র ধরে অভিনয় জগতে প্রবেশ ঘটে ছিল তার। প্রথম দিকে তিনি ছোটখাটো চরিত্র করতেন পরে ১৯৮২ সালে ‘ত্রয়ী’ ছবি করে জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন তিনি। এই ছবিতেই তিনি বাংলার সুপারস্টার মিঠুন চক্রবর্তী (Mithun Chakraborty) ও দেবশ্রী রায়ের (devashree Rai) সাথে অভিনয় করেছিলেন।

ত্রয়ী ছবিই তার অভিনয় জীবনের চাকা ঘুরিয়ে দেয়। এরপর গুরুদক্ষিণা, মঙ্গলদীপ, হীরক জয়ন্তী র মতো একাধিক জনপ্রিয় সিনেমার অফার তার হাতে আসতে শুরু করে। জনপ্রিয় হওয়ার পর একসময় নেশাগ্রস্ত হয়ে পড়েন অভিনেতা, সেই সময় নেশার কারণে অভিনয় থেকে দূরে সরে গিয়েছিলেন তিনি। অভিনেতার জীবনে একটাই আক্ষেপ ছিল তিনি সারা জীবনে এমন কোনো ভালো চরিত্র পান নি, যা করে তিনি সকলকে মাতিয়ে দিতে পারতেন। বরাবর খলচরিত্রেই অভিনয় করে গিয়েছেন তিনি।

ব্যক্তিগত জীবনে তিনি অভিনেত্রী রিতা কয়রালকে বিয়ে করেছিলেন, তবে সেই বৈবাহিক সম্পর্ক বেশি দিনের জন্য স্থায়ী হয়নি। ২০০০ সালে মাত্র ৪৬ বছর বয়সে প্রয়াত হন অভিনেতা সৌমিত্র বন্দোপাধ্যায়।

Related Articles

Back to top button