বিনোদন

বিয়ের কয়েক মাসের মধ্যেই বড় অঘটন, প্রিয়জনকে হারিয়ে ভেঙে পড়লেন রুদ্রজিৎ-প্রমিতা

বর্তমানে টলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় জুটি হলেন রুদ্রজিৎ এবং প্রমিতা। স্যোশাল মিডিয়া জুড়ে ছড়িয়ে রয়েছে এই যুগলের ছবি। দুজনেই ধারাবাহিকের জনপ্রিয় মুখ। ১৪ই ফেব্রুয়ারি পুরুলিয়ায় গিয়ে নিজেদের বাগদান পর্ব সেরে আসলেন জুটি। সেখানেই তাদের আইনিভাবে বিবাহ সম্পন্ন হয়েছিল। বিয়ের কয়েক মাসের মধ্যেই রুদ্রজিৎ নিজের বাবাকে হারান। এক মাস ধরে নানা শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন তিনি। শেষে ব্রেন স্ট্রোক হয়ে তিনি মারা যান।

রুদ্রজিৎ এবং প্রমিতা দুজনেই এখন ধারাবাহিকের কাজে ভীষণ ব্যস্ত। রুদ্রজিৎ বর্তমানে জিবাংলার ‘জীবন সাথী’ ধারাবাহিকে একটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করছেন। অন্যদিকে প্রমিতা ‘রানী রাসমণি’ ধারাবাহিকে অভিনয় করছে। দুজনেই দুজনের অভিনয়ের মাধ্যমে মানুষের মনে জায়গা করে নেন। অবশ্য জি বাংলার ‘সাত ভাই চম্পা’ ধারাবাহিকে তাদের দুজনকে একসাথে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল। সেখান থেকেই তাদের সম্পর্কের সূত্রপাত।

বাবার মৃত্যুর খবর নিজেই নিজের ইনস্টা হ্যান্ডেলে পোস্ট করেন রুদ্রজিৎ। ফাদার্স ডে-র আগে বাবাকে হারিয়ে ভীষণই ভেঙ্গে পড়েছেন অভিনেতা। এর আগে যেকোনো অনুষ্ঠান এই জুটিকে বেশ ধুমধাম করে পালন করতে দেখা গেছে। কিন্তু বাবার অসুস্থতার জন্য জামাইষষ্ঠী পালন করেননি তারা। এবছর দোল পূর্ণিমাতে প্রমিলা রুদ্রজিৎ-এর বাড়িতেই ছিলেন তাদের বাবা-মা।

যদিও প্রমিলাকে ভালোবেসে বিয়ে করার কথা প্রথমে রুদ্রজিৎ বাড়িতে জানাতে পারেননি। তবে সবসময় ছটফটে প্রাণবন্ত প্রমিতার উৎসাহেই তাদের বাড়ি থেকে বিয়ের কথা পাকা হয়। যদিও তাদের এখনই বিয়ে করার পরিকল্পনা ছিল না। এই জুটি ঠিক করেছিলেন তারা ২০২৩ এ বিয়ে করবেন। কিন্তু করোনা আবহে দীর্ঘ লকডাউনে তারা দু’জন দু’জনকে প্রচন্ড মিস করেন। তাই একপ্রকার নিরুপায় হয়েই আইনি বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেন।

Related Articles

Back to top button